জেনে নিন অক্ষয় তৃতীয়ার দিন কোন জিনিস ঘরে আনলে আপনার জীবন সুখময় হয়ে উঠবে

38
জেনে নিন অক্ষয় তৃতীয়ার দিন কোন জিনিস ঘরে আনলে আপনার জীবন সুখময় হয়ে উঠবে

অক্ষয় তৃতীয়ার অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হতে চলেছে আর কিছুদিনের মধ্যেই। বৈশাখ মাসের শুক্লপক্ষের তৃতীয় তিথিতে এই অক্ষয় তৃতীয় অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিবছর হিন্দু পরিবার এই দিনে কোন না কোন জিনিস ক্রয় করে থাকেন। তারা মনে করেন যে কোন জিনিস ক্রয় করলে সারাজীবন শুভ যাবে তাদের। অনেকে আবার এও মনে করেন যে, অক্ষয় তৃতীয়ার দিন বিষ্ণু এবং লক্ষ্মী পূজা করলে ধন সম্পত্তির কোনদিন অভাব হয় না।

অক্ষয় তৃতীয়ার দিন লক্ষী স্বর্গ মর্ত্যে অবতীর্ণ হন এবং ভক্তদের মনোকামনা পূর্ণ করেন। লক্ষ্মী দেবীর দিশা দক্ষিণ দিক বলে মনে করা হয়। তবে অক্ষয় তৃতীয়ার দিন মা লক্ষ্মী কে ঈশান কোনে বসিয়ে পুজো করা হয়। এদিন মায়ের কাছে যে কোন কামনা করলে তা পূরণ করেন মা। তাই এবার জেনে নিন কোন কোন জিনিস আপনি ঘরে আনলে আপনার জীবন সুখময় হয়ে উঠবে।

লক্ষীর পাদুকা: লক্ষ্মীর পায়ের চিহ্ন হিসেবে তার পাদুকা বাড়িতে আনা খুব শুভ বলে মনে করা হয়। সোনা অথবা রুপোর পাদুকা যদি বাড়িতে রাখেন, তাহলে মায়ের আশীর্বাদ আপনার ওপর সদা বর্ষণ হবে।

কড়ি: লক্ষ্মী দেবীর আটটি অবতার কে খুব জাগ্রত মনে করা হয়। তাই তার প্রতীক হিসাবে আপনি বাড়িতে আনতে পারেন কড়ি। এই দিনে আটখানি হলুদ কড়ি এনে ঈশান কোণে রেখে দিন।

কচ্ছপ: এইদিন বাড়ির ঈশান কোনে যদি কচ্ছপের মূর্তি রাখতে পারেন, তাহলে আপনার ভবিষ্যৎ সুনিশ্চিত হয়ে যাবে। নবরত্নের মূর্তি সবথেকে বেশি শুভ বলে মনে করা হয়। আবার স্ফটিক দ্বারা নির্মিত কচ্ছপের মূর্তি ও কিনতে পারেন।

বাঁশি: ঈশান কোণে একটি বাঁশি ও রেখে দিতে পারেন।

মাটির কলসি: একটি মাটির কলসি কিনে এনে ঈশান কোণে রেখে দিন। সারা জীবন আপনার হাসি খুশি এবং সুখ-সমৃদ্ধিতে কেটে যাবে।