অভিযোগ প্রমাণ করতে পারলে মুম্বাই ছেড়ে দেবেন বলে সরকারের প্রতি চ্যালেঞ্জ জানালেন কঙ্গনা রানাওয়াত

4
অভিযোগ প্রমাণ করতে পারলে মুম্বাই ছেড়ে দেবেন বলে সরকারের প্রতি চ্যালেঞ্জ জানালেন কঙ্গনা রানাওয়াত

“আমার মাদক টেস্ট করা হোক, মাদকচক্রের সাথে জড়িত প্রমাণিত হলে ভুল স্বীকার করে মুম্বাই ছেড়ে চলে যাব”, মহারাষ্ট্র সরকারের প্রতি কার্যত চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিলেন বলিউড “কুইন” কঙ্গনা রানাওয়াত। সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু রহস্যের মামলায় বলিউডের সাথে মাদকের সংযোগ খুঁজে পেয়েছেন তদন্তকারীরা। সম্প্রতি, সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচারিত একটি ভিডিওর মাধ্যমে জল্পনা ছড়ায়, কঙ্গনাও মাদক সেবনের সাথে জড়িত।

সম্প্রতি, কঙ্গনার প্রাক্তন প্রেমিক তথা বলিউড অভিনেতা অধ্যয়ন সুমনের একটি পুরনো সাক্ষাতকারের ভিডিও প্রকাশ্যে এসেছে। ২০১৬ সালে একটি বেসরকারি সংবাদমাধ্যমে সাক্ষাতৎকার দিতে গিয়ে অধ্যয়ন বলেছিলেন, কঙ্গনা রানাওয়াত একসময় হ্যাশের (মাদকদ্রব্য) নেশা করতেন। এমনকি তার সঙ্গে সম্পর্কে থাকাকালীন অধ্যয়নকেও নাকি কোকেন অফার করেছিলেন কঙ্গনা।

অধ্যয়নের দাবি, সেসময় কঙ্গনার অফারে রাজি না হলেও পরবর্তী ক্ষেত্রে চার-পাঁচবার কঙ্গনার সাথে হ্যাশের নেশা করেছিলেন তিনি। এই ভিডিও প্রকাশ্যে আসতেই তথ্যের সত্যতা যাচাই করতে বিধানসভা বৈঠকে মুম্বাই পুলিশকে কঙ্গনার বিরুদ্ধে তদন্ত করার আবেদন জানিয়েছেন দুই বিধায়ক সুনীল প্রভু এবং প্রতাপ সারনায়েক। তাদের আবেদনের ওপর ভিত্তি করেই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনিল দেশমুখ জানিয়ে দেন, এ তথ্যের সত্যতা বিচার করবে মুম্বাই পুলিশ।

এদিকে তার বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ প্রমাণ করতে পারলে মুম্বাই ছেড়ে দেবেন বলে চ্যালেঞ্জ করেছেন কঙ্গনা রানাওয়াত। সম্প্রতি, তিনি একটি টুইট বার্তায় জানিয়েছেন, তিনি মুম্বাই পুলিশ এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সাথে পূর্ণ সহযোগিতা করবেন। অবিলম্বে তার মাদক টেস্ট করা হোক। পাশাপাশি, তার টেলিফোনের রেকর্ড চেক করার আবেদনও জানিয়েছেন কঙ্গনা। এর পরেই তার বিরুদ্ধে অভিযোগকারীদের প্রতি চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়ে কঙ্গনার বক্তব্য, দোষী প্রমাণিত হলে, মুম্বাই ছেড়ে দেবেন তিনি।