জঙ্গিগোষ্ঠীর সাথে যোগ! অবৈধ এক মাদ্রাসা বুলডোজারের সাহায্যে গুঁড়িয়ে দিল অসম সরকার

7
জঙ্গিগোষ্ঠীর সাথে যোগ! অবৈধ এক মাদ্রাসা বুলডোজারের সাহায্যে গুঁড়িয়ে দিল অসম সরকার

উত্তরপ্রদেশে দেশদ্রোহী তার সঙ্গে সংযুক্ত থাকার অপরাধে অপরাধীদের বাড়ি বুলডোজার দিয়ে গুঁড়িয়ে দেওয়ার ঘটনা ঘটেছে বহুবার। এবার একই ঘটনা ঘটেছে অসমে। অবৈধ এক মাদ্রাসা বুলডোজারের সাহায্যে গুঁড়িয়ে দিল অসম সরকার। এই মাদ্রাসার বিরুদ্ধে অভিযোগ এর সঙ্গে এক জঙ্গিগোষ্ঠীর যোগাযোগ ছিল।

গতকাল অসমে এক বাংলাদেশী জঙ্গি সংগঠনের সদস্য ধরা পড়েছে। মুস্তাফা ওরফে মুফতি মুস্তাফা নামের একমাত্র মাদ্রাসা শিক্ষককে গ্রেফতার করা হয়েছে। আপাতত সে রয়েছে পুলিশের হেফাজতে। ২০১৭ সালে ভোপাল থেকে ইসলাম আইনে পিএইচডি শেষ করেছে ওই ব্যক্তি। ওই জঙ্গি জামিউল হুদা নামের একটি মাদ্রাসা চালাত।

রাষ্ট্রবিরোধী আইন মেনে এই মাদ্রাসা ভেঙ্গে গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়েছে বলে জানানো হয়েছে। ধৃত এই জঙ্গি বাংলাদেশের অন্যতম জঙ্গি সংগঠন আনসারুল বাংলার সদস্য বলে জানিয়েছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার আসনের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা বলেছেন অসম জিহাদী কার্যকলাপের কেন্দ্রস্থলে পরিণত হয়েছে।

সাম্প্রতিক অতীতে পাঁচটি ঘটনায় বাংলাদেশের জঙ্গি সংগঠনের সঙ্গে যোগাযোগ মিলেছে বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। এই বিষয় নিয়ে তিনি উদ্বিগ্ন। প্রশাসনের তরফ থেকে জানানো হয়েছে সাধারণ মানুষকে এই বিষয়ে সচেতন করতে হবে। যদি কাউকে সন্দেহভাজন বলে মনে হয় তাহলে পুলিশকে খবর দিতে হবে।