ঘাড় অথবা গলা কালো হয়ে গেছে? ঘরোয়া টোটকায় করে নিন পরিষ্কার

33
ঘাড় অথবা গলা কালো হয়ে গেছে? ঘরোয়া টোটকায় করে নিন পরিষ্কার

সারাবছর বিশেষ করে গরমকালে বাড়ি থেকে বের হলেই আমাদের শরীরের বিভিন্ন অংশে পড়ে যায় ট্যান। সবথেকে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয় যে সমস্ত অংশ উন্মুক্ত থাকে। বিশেষত আমাদের হাত এবং ঘাড়ের কিছু অংশ সূর্যালোকে ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে যায় সব থেকে বেশি। গরমকালে বাড়ি থেকে বের হলেই আমরা অনেকেই মুখে সানস্ক্রিন ব্যবহার করে থাকি। কিন্তু শরীরের অন্যান্য অংশে কিভাবে যত্ন নেওয়া হয় না। তাই ঘাড় অথবা গলা আমাদের অনেকটাই কালো হয়ে থাকে শরীরের অন্য অংশের তুলনায়।

পাতি লেবুর রস দিয়ে ব্লিচিং: আপনার রান্না ঘরে যে লেবুটি থাকে, তাতে কিন্তু ব্লিচিং ক্ষমতা প্রবল থাকে। প্রতিটি লেবুতে থাকে সাইট্রিক অ্যাসিড যা প্রাকৃতিক ব্লিচিং এর সাহায্য করে থাকে। তাই পাতি লেবু দিয়ে খুব সহজে কাল ত্বককে উজ্জ্বল করা যায়। আপনার রান্না ঘরে যে লেবুটি রয়েছে, সেই লেবুর রসের সঙ্গে মিশিয়ে নিন একটু গোলাপজল। রাতে শোবার আগে এই মিশ্রণটি গলা এবং ঘাড়ে মেখে নিন। সকালে উঠে ভালো করে ধুয়ে ফেলুন। পরিবর্তন নিজেই বুঝতে পারবেন।

ওটস ব্যবহার করা: শুধুমাত্র খাবার জন্য এর উপকারিতা সীমাবদ্ধ নয়। ওটস ব্যবহার করলে আপনার ত্বক উজ্জ্বল হতে পারে। স্ক্রাবার টি বানানোর জন্য টমেটো নির্যাস, জল, যে কোন ক্রিম এবং ওটস এক জায়গায় মিশিয়ে নিতে হবে। এরপর সেটি গলা এবং ঘাড়ে কিছুক্ষণ মেখে রেখে দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। টমেটোর নির্যাস প্রাকৃতিক ভাবে আপনার ত্বককে নির্মল করে তুলবে।

কমলালেবুর খোসা: কমলালেবুর খোসা দিয়ে থাকে ভিটামিন সি যা আপনার ত্বককে উজ্জ্বল করে এবং সাদা হতে সাহায্য করে। কমলালেবুর খোসা বেটে দুধের সঙ্গে মিশিয়ে একটি প্রলেপ বানিয়ে ফেলুন। এটি ঘাড়ে এবং গলায় খানিকক্ষণ ঘষে ধুয়ে ফেলুন।

অ্যালোভেরা: ত্বক এর সব থেকে ভালো বন্ধু হলো অ্যালোভেরা। এলোভেরাতে যে যে উপাদান থাকে তা আপনার ত্বককে সবথেকে সুন্দর করে রাখে। সরাসরি গাছ থেকে এই পাতার নির্যাস গলার কালো জায়গাগুলিতে মাখিয়ে নিন। মিনিট কুড়ি পরে ধুয়ে ফেলুন। সঙ্গে সঙ্গে পার্থক্য বুঝতে পারবেন।