সীমান্ত উত্তেজনায় ভারতের নতুন পদক্ষেপ, লাদাখে পাঠানো হল মার্কোস বাহিনী

31
সীমান্ত উত্তেজনায় ভারতের নতুন পদক্ষেপ, লাদাখে পাঠানো হল মার্কোস বাহিনী

পূর্ব লাদাখ সীমান্তে দিনের পর দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে সীমান্ত লড়াই। দুই দেশ নিজেদের মতো করে সেনা মোতায়েন করে চলেছে সীমান্তে। এবার এর মধ্যেই ভারতের এক মাস্টার স্ট্রোক। আসলে ভারতের প্রতিরক্ষা বাহিনীর মধ্যে মার্কোস বাহিনী খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তাদের উপস্থিতি অনেকেই বুঝতে পারে না, কারণ তারা জলের নিচ দিয়ে শত্রুকে অতর্কিতে হামলা করে। আর এবার এই বাহিনীকেই লাদাখ সীমান্তে পাঠাচ্ছে ভারত সরকার।

সূত্রের মাধ্যমে জানা গেছে, লাদাখে তিন বাহিনীর সমন্বয়ের মাধ্যমে এবং বিশেষ করে তাদের প্রত্যেকের অভিজ্ঞতা বৃদ্ধির জন্য এই পদক্ষেপ। লাদাখের প্রবল শীতের মধ্যে মার্কোস বাহিনীর অভিজ্ঞতা বৃদ্ধি খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটা বিষয়।

চলতি বছরের জুন জুলাই থেকেই এই সীমান্ত লড়াই, যার ফলে, এই একেবারে প্রথম থেকেই সেখানে মোতায়ন করা রয়েছে বায়ুসেনা এবং আধা সামরিক বাহিনী। এবার সরকারের শীর্ষ কর্তাদের তরফে জানা গেছে, এই দুই সেনাবাহিনীর সাথে নতুনভাবে যোগ করা হয়েছে মার্কোস বাহিনীকে। এখানেই শেষ না সেনা সূত্রে আরো জানা গেছে, প্যাঙ্গং হ্রদের কাছেই আধুনিক সরঞ্জাম ও আধুনিক নৌকাসহ তাদের মোতায়েন করা হয়েছে।

একেবারে শুরুর দিক থেকেই সীমান্তে কড়া নিরাপত্তা রেখেছে ভারত। এই কারণেই, প্রকৃত সীমান্তরেখায় মোতায়েন করা হয়েছে সামরিকের বিশেষ বাহিনী, যার মধ্যে রয়েছে ক্যাবিনেট সেক্রেটারিয়েটের বিশেষ বাহিনী। মোটকথা এখন ভারত কোনোভাবেই নিরাপত্তার দিক থেকে খামতি রাখতে চায় না।