ভারতের জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা দপ্তরে নিয়োগ করা হল ১০০ জন মহিলা

9
ভারতের জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা দপ্তরে নিয়োগ করা হল ১০০ জন মহিলা

জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা দল তথা NDRF-এ স্থান পেলেন ভারতীয় মহিলারা! ভারতের ইতিহাসে এই প্রথম বার বিপর্যয় মোকাবিলা দপ্তরে নারীরা যোগদান করলেন। সত্যিই তো, বর্তমান সামাজিক অগ্রগতির যুগে মহিলারা পুরুষদের তুলনায় কোনো অংশেই কম নন। বরং তারা পুরুষদের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে লড়াই করার ক্ষমতা রাখেন। জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা দপ্তরেও তার প্রমাণ রাখলেন ভারতীয় মহিলারা। এই টিমে অন্তত একশোজন ভারতীয় মহিলা অংশগ্রহণ করেছেন বলে জানা গিয়েছে।

ভারতের এই প্রথম মহিলা জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা দল কিন্তু ইতিমধ্যেই কাজ শুরু করে দিয়েছে। উত্তর প্রদেশের সরকার সম্প্রতি জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা দল চেয়ে পাঠায়। উত্তর প্রদেশের গড় মুক্তশ্বের টাউনে গঙ্গা তীরে উদ্ধাকার্য চালানোর জন্য NDRF-এর তরফ থেকে এই মহিলা উদ্ধারকারী দল “দশভূজা ব্রিগেড”কে উত্তরপ্রদেশে পাঠানো হয়।‌ সদ্য প্রশিক্ষিত, দক্ষ মহিলা উদ্ধারকারীরা প্রাথমিকভাবে সেখানে উদ্ধারকার্য চালিয়েছেন।

তবে NDRF-এর মহিলা টিমে নিয়োগ এখনও চলছে। আপাতত ১০০ জন মহিলা উদ্ধারকারী নিয়োগ করা হয়েছে। অদূর ভবিষ্যতে আরও ১০০ জনকে নিয়োগ করা হতে চলেছে। অর্থাৎ ভারতের জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা দপ্তরে অন্তত ২০০ জন মহিলা উদ্ধারকারী থাকবেন। এরা প্রত্যেকেই অত্যন্ত দক্ষ। যেকোনো পরিস্থিতির মোকাবিলা করতে তারা সদা তৎপর। দেশের অগ্রগতির পথে এই ঐতিহাসিক কর্মসূচী প্রকৃতপক্ষে এক অন্যতম স্তম্ভ স্বরূপ।

NDRF কর্তৃপক্ষ সূত্রে খবর, বিগত দিনে উদ্ধারকার্য চালানোর সময় মহিলার উদ্ধারকারীর প্রয়োজনীয়তা বেশ অনুভব করা গিয়েছে। বিশেষ করে মহিলা এবং শিশুদের উদ্ধার কার্যে মহিলা উদ্ধারকারীর দলটি বিশেষভাবে প্রয়োজন। আপাতত জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীতে মহিলাদের কনস্টেবল ও সাব-অফিসার পদে নিয়োগ করা হচ্ছে। কালক্রমে বাকি সব বিভাগেই পুরুষদের পাশাপাশি মহিলাদেরও নিয়োগ করা হবে বলে জানানো হয়েছে।