শত্রু রাষ্ট্রের ভার্চুয়াল বৈঠকে যোগদান করে বিক্ষোভের মুখে পড়লেন ভারতের বামপন্থী নেতারা

14
শত্রু রাষ্ট্রের ভার্চুয়াল বৈঠকে যোগদান করে বিক্ষোভের মুখে পড়লেন ভারতের বামপন্থী নেতারা

সম্প্রতি চীনা কমিউনিস্ট পার্টির শতবর্ষ উদযাপন উপলক্ষে দিল্লির চিনা দূতাবাসের তরফ থেকে একটি ভার্চুয়াল বৈঠকের আয়োজন করা হয়েছিল। প্রতিবেশী রাষ্ট্রের তরফের আয়োজিত এই বৈঠকে যোগদান করেছেন ভারতের বাম মনোভাবাপন্থী শীর্ষ নেতারা। আর এতেই কার্যত তারা রাজনৈতিক মহলের চক্ষুশূল হয়েছেন। ভারতের শত্রু রাষ্ট্রের তরফ থেকে আয়োজিত ওই বৈঠকে অংশগ্রহণ করে তারা কার্যত দেশ বিরোধী কার্যকলাপে লিপ্ত হয়েছেন বলে দাবি করছে বিরোধী বিজেপি শিবির।

বিগত প্রায় দেড় বছরেরও বেশি সময় ধরে করোনার কারণে ধুঁকছে সারা পৃথিবী। সারা পৃথিবীকে এই বিপদের মুখে ঠেলে দিয়েছে ভারতের প্রতিবেশী রাষ্ট্র চীন। ফলে চীন এখন পৃথিবীর প্রায় প্রতিটি দেশের চক্ষুশূলে পরিণত হয়েছে। তার উপর আবার গত বছর গালওয়ান উপত্যকায় চীনের হামলায় ভারতীয় জওয়ানদের মৃত্যু হয়। যার জন্য চীনের সঙ্গে ভারতের বাণিজ্যিক সম্পর্কও প্রায় নষ্ট হয়ে গিয়েছে।

এমতাবস্থায় চীনের তরফে আয়োজিত ভার্চুয়াল বৈঠকে অংশগ্রহণ করে বাম নেতারা প্রশ্নের মুখে পড়ে গিয়েছেন। যদিও তাদের দাবি আদর্শের জায়গা বজায় রেখেই তারা ওই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন। তবে তাদের এই দাবিতেও কার্যত বিতর্ক এড়ানো সম্ভব হচ্ছে না। ভারতের শত্রু রাষ্ট্রের সঙ্গে বৈঠকে অংশগ্রহণ করে তারা দেশ বিরোধী কার্যকলাপ করেছেন, এমনই দাবি তুলছে বিরোধী বিজেপি শিবির।

চীনা কমিউনিস্ট পার্টি চলতি বছরে ১০০ বছরে পদার্পণ করেছে। বিভিন্ন দেশের ১৬০টি রাজনৈতিক দলের নেতৃত্বকে সঙ্গে নিয়ে শতবর্ষ উপলক্ষে ভার্চুয়াল মাধ্যমে এদিন বৈঠকের আয়োজন করা হয়েছিল। সিসিপি-র সাধারণ সম্পাদক এবং চিনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং এই বৈঠকের নেতৃত্ব দিয়েছেন।