উপত্যকা অঞ্চলে জঙ্গী হামলার ভয়ানক ষড়যন্ত্র ভেস্তে দিল ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী

6
উপত্যকা অঞ্চলে জঙ্গী হামলার ভয়ানক ষড়যন্ত্র ভেস্তে দিল ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী

উপত্যকা অঞ্চলে বেশ বড়সড় জঙ্গী নাশকতার ষড়যন্ত্র ভেস্তে দিল ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী। কাশ্মীরের আরামপোরা এলাকায় একটি সেতুর নিচে বালির বস্তার মধ্যে প্রচুর বিস্ফোরক ও ইমপ্রোভাইসড এক্সপ্রোসিভ ডিভাইস (আইইডি) লুকিয়ে রেখেছিল দুষ্কৃতীরা। উপত্যকা অঞ্চলের পুলিশ এবং ভারতীয় সেনাবাহিনীর যৌথ উদ্যোগে সেই বিস্ফোরক ভর্তি বালির বস্তা উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে।

ভারতীয় নিরাপত্তারক্ষী বাহিনী সূত্রে খবর, জম্মু ও কাশ্মীরের সোপোর-কুপওয়ারা রোডের কাছে আরামপোরায় একটি সেতুর নীচে বালির বস্তার মধ্যে বিস্ফোরক বোঝাই করে রেখেছিল জঙ্গিরা। এই সোপোর-কুপওয়ারা রোড ধরেই যাতায়াত করেন ভারতীয় সেনাবাহিনী এবং নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা। সরকারি দফতর সূত্রে দাবি করা হচ্ছে, মূলত ভারতীয় জওয়ানদের গাড়ি লক্ষ্য করেই আইইডি বিস্ফোরণের ছক কষেছিল জঙ্গিরা।

ভারতীয় সেনাবাহিনী এবং নিরাপত্তা রক্ষী বাহিনীর যৌথ উদ্যোগে উপত্যকা অঞ্চলে জঙ্গী হামলার সেই ভয়ানক ষড়যন্ত্র নির্মূল করা সম্ভব হয়েছে। যৌথবাহিনীর কাছে খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছায় বম্ব ডিসপোজাল স্কোয়াড। দ্রুত তৎপরতার সাথে বিস্ফোরক গুলিকে নিষ্ক্রিয় করেছে বম্ব ডিসপোজাল স্কোয়াডের সদস্যরা। যৌথ বাহিনীর তৎপরতায় কাশ্মীরে বড়োসড়ো জঙ্গী নাশকতার ছক ভেস্তে দেওয়া সম্ভব হয়েছে।

উল্লেখ্য এর আগেও উপত্যকা অঞ্চলে ঠিক এভাবেই নাশকতা মূলক হামলা চালানোর পরিকল্পনা করেছিল জঙ্গীরা। কয়েকদিন আগেই, জম্মু ও কাশ্মীরের পুলওয়ামা জেলার তুজান গ্রামের কাছে অবস্থিত একটি সেতুর নিচে আইইডি বিস্ফোরক লুকিয়ে রাখে দুষ্কৃতীরা। পুলওয়ামা জেলা ও বদগামের সংযোগরক্ষাকারী ওই সেতু ধরেই ভারতীয় নিরাপত্তা বাহিনী যাতায়াত করতেন। ফলে, সেখানেও জঙ্গী হামলা করার টার্গেট করেছিল জঙ্গিরা। নিরাপত্তা বাহিনীর তৎপরতায় সেবারেও তাদের পরিকল্পনা ভেস্তে যায়।