রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের প্রতি সম্মান জানিয়ে রাষ্ট্রীয় শোকদিবস পালন করবে ভারত

6
রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের প্রতি সম্মান জানিয়ে রাষ্ট্রীয় শোকদিবস পালন করবে ভারত

প্রায় ৭০ বছর ধরে রাজ্যপাট সামলে ৯ই সেপ্টেম্বর, ২০২২ পৃথিবী থেকে বা বলা ভালো তাঁর রাজ্যপাট থেকে বিদায় নিলেন ব্রিটেনের মহারানী দ্বিতীয় এলিজাবেথ। তাঁর মৃত্যুতে শোকাস্তব্ধ গোটা ব্রিটেন। শুধু ব্রিটেনই নয় পাশাপাশি দেশগুলিও একই ভাবে মর্মাহত। আর এই খবর শোনার পরে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীও শোক প্রকাশ করেন। আর তাঁর পরেই একদিনের রাষ্ট্রীয় শোক ঘোষণা করা হল দেশে। জানা গিয়েছে, শুক্রবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফ থেকে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি হয়েছে। সেখানে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে আগামী রবিবার, অর্থাৎ ১১ সেপ্টেম্বর রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের প্রতি সম্মান জানিয়ে রাষ্ট্রীয় শোকদিবস পালন করবে ভারত।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফে দেওয়া নির্দেশিকায় উল্লেখ করা হয়েছে, “৮ সেপ্টেম্বর মাহারানি সাহিবা ক্যুইন দ্বিতীয় এলিজাবেথের জীবনাবসান হয়েছে। তিনি গ্রেট ব্রিটেনের মহারানি ছিলেন। তাঁর প্রতি সম্মান জানিয়ে আগামী ১১ সেপ্টেম্বর ভারতে রাষ্ট্রীয় শোক পালিত হবে। ওইদিন গোটা দেশের সর্বত্র জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত থাকবে।” দীর্ঘ ৯৬ বছর বয়স অবধি রাজ্য সামলে চলে গেলেন রানী এলিজাবেথ। ব্রিটেনের মধ্যে সবচেয়ে বেশি সময় ধরে রাজ্যপাট চালিয়েছেন তিনি। এই মুহূর্তে তাঁর শেষকৃত্যের প্রস্তুতি চলছে।

জানা যাচ্ছে তাঁকে আজই স্কটল্যান্ডের বালমোরাল রাজপ্রাসাদ থেকে নিয়ে যাওয়া হবে লন্ডনের বাকিমহাম প্যালেসে। এরপর সেখান থেকে কফিনবন্দি রানির দেহ নিয়ে যাওয়া হবে ওয়েস্টমিনস্টার হলে। সেখানেই আগামী তিনদিন সেখানেই থাকবে এলিজাবেথ দ্য সেকেন্ডের নিথর দেহ। এর জন্য দিনের মধ্যে ২৩ ঘণ্টা খোলা রাখা হবে এই হল। মৃত্যুর ১০ দিনের মাথায় ওয়েস্টমিনস্টার অ্যাবেতে স্বামী প্রিন্স ফিলিপের পাশেই সমাধিস্থ করা হবে রানিকে।

ব্রিটিশ রাজ পরিবারের তরফ থেকে প্রথমে সোশ্যাল মিডিয়া এবং সাংবাদমাধ্যমগুলিতে দুঃসংবাদটি জানানো হয় বৃহঃস্পতিবার। জানা যায় বৃহস্পতিবার দুপুরে বালমোরালের রাজপ্রসাদে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন রানি দ্বিতীয় এলাজাবেথ । রানির মৃ্ত্যুতে জাতীয় শোক দিবস ঘোষণা করেছে ব্রিটিশ সরকারও। অর্ধনমিত রাখা হচ্ছে তাদের জাতীয় পতাকাও।

সূত্র মারফত জানা যাচ্ছে রানী দাপটের সাথে রাজ্যপাট সামলালেও শেষ জীবনটায় তিনি মানসিক ভাবে ভেঙে পড়েছিলেন যখন তাঁর স্বামীর মৃত্যু ঘটে।একা হয়ে পড়েছিলেন তিনি। তাঁর মনের সাথে শরীরেও অবনতি হচ্ছিল। বয়সটাও বাড়ছিল বেশি চলা ফেরাও করতে পারতেন না গত অক্টোবর থেকেই। অবশেষে তাঁর সকল কষ্টের অবসান হলো। চলে গেলেন রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথ। গোটা ব্রিটেনের মনের অবস্থা কতটা শোকাহত তা আর বলার অপেক্ষা রাখেনা।