মঙ্গলবার ফের অত্যাধুনিক সুপারসনিক ক্রুজ মিসাইল “ব্রহ্মস” এর সফল উৎক্ষেপণ করল ভারত

4
মঙ্গলবার ফের অত্যাধুনিক সুপারসনিক ক্রুজ মিসাইল

একের পর এক মিসাইলের সফল উৎক্ষেপণ করছে ভারত। মঙ্গলবার সকালে অত্যাধুনিক সুপারসনিক ক্রুজ মিসাইল “ব্রহ্মস” এর পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণ সফল হলো। বিশিষ্ট সংবাদ সংস্থা এএনআই সূত্রে খবর, আন্দামান এবং নিকোবর দ্বীপপুঞ্জে এদিন সকালে “ব্রহ্মস” এর সফল উৎক্ষেপণ করা হয়েছে। উল্লেখ্য, গত মাসেই “ব্রহ্মস” এর একদফা সফল উৎক্ষেপণ সম্পন্ন হয়ে গিয়েছে।

ভারতীয় সেনা সূত্রে খবর, মঙ্গলবার সকালে অত্যাধুনিক “ব্রহ্মস” ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষামূলক চূড়ান্ত উৎক্ষেপণ করা হয়। এ দিন “ব্রহ্মস” তার নির্ধারিত লক্ষ্যবস্তুতে সফল ভাবে আঘাত করতে সক্ষম হয়েছে। মঙ্গলবার সকাল দশটা নাগাদ এই পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণ সম্পন্ন করা হয়। ভারতের প্রতিরক্ষা এবং গবেষণা সংস্থা ডিফেন্স রিসার্চ ডেভলপমেন্ট অর্গানাইজেশন তথা ডিআরডিও এর তরফ থেকে মিসাইলের উৎক্ষেপণ সম্পন্ন করা হয়।

এএনআইয়ের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, আন্দামানের একটি দ্বীপ থেকে অপর একটি দ্বীপে রাখা লক্ষ্যবস্তুতে সফলভাবে আঘাত হেনেছে “ব্রহ্মস”। পূর্ব সিদ্ধান্ত অনুযায়ী নভেম্বর মাসের শেষ সপ্তাহেই চূড়ান্ত উৎক্ষেপণ সম্পন্ন হল। এর আগে গত অক্টোবর মাসের ১৮ তারিখে আরব সাগরে ভারতীয় নৌসেনার মোতায়েন করা অত্যাধুনিক রণতরী বা স্টেলথ ডেস্ট্রয়ার আইএনএস চেন্নাই থেকে “ব্রহ্মস” এর সফল উৎক্ষেপণ করা হয়।

ভারতীয় নৌ সেনাবাহিনী সূত্রে খবর, অত্যাধুনিক “ব্রহ্মস” মিসাইল ঘণ্টায় প্রায় ৩৭০০ কিলোমিটার বেগে ছুটে গিয়ে ৪০০ কিলোমিটার দূরত্বে অবস্থিত যেকোনো লক্ষ্যবস্তুতে নির্ভুল ভাবে আঘাত হানতে সক্ষম। আগে এই মিসাইলের পাল্লা ছিল ২৯০ কিলোমিটার। তবে পরবর্তী ক্ষেত্রে অত্যাধুনিক “ব্রহ্মস” মিসাইলের পাল্লা বাড়ানো হয়। সুপারসনিক অত্যাধুনিক ক্রুজ মিসাইলটি এই মুহূর্তে ভারতীয় নৌসেনাকে শত্রু পক্ষের বিরুদ্ধে আরও মজবুত করে তুলেছে।