দূরপাল্লার ট্রেনে ঘুমের নিয়ম আছে ভারতে! না জানলে জানুন

13
দূরপাল্লার ট্রেনে ঘুমের নিয়ম আছে ভারতে! না জানলে জানুন

ভারতে ট্রেনে ঘুমনোর অনেক নিয়ম আছে। অনেকের ট্রেনে উঠলেই ঘুম পায়। লোকাল ট্রেনে দিনের যে কোনও সময় ঢুলে ঢুলে ঘুমনোয় কোনও বাধা নেই কিন্তু দূরপাল্লায় ঘুমের নিয়ম আছে।

ভারতীয় রেলের পক্ষে, ঘুমের নিয়মের সময় বেঁধে দেওয়া রয়েছে। আর সেটা না মানলে জরিমানা হয়ত দিতে হবে না কিন্তু সহযাত্রীদের সঙ্গে বিচ্ছিরি ঝঞ্ঝাটে জড়াতে হতে পারে। রেলের যা নিয়ম তাতে দিনের বেলায় ঘুমের সুযোগই নেই।

দুপুরে ঘুমনো যায় কিন্তু সেক্ষেত্রে কোন বগির একটি কুপের সকলকেই শুয়ে পড়তে হবে। তবে এ ক্ষেত্রে জোর করা যায় না। ভারতীয় রেলের নিয়ম অনুযায়ী রাত ১০টা থেকে সকাল ৬টা পর্যন্ত স্লিপার ক্লাসের কোনও বার্থ শোওয়ার জন্য ব্যবহার করা যায়। এসি থ্রি টিয়ার বগির ক্ষেত্রেও নিয়ম এক।

আগে রাত ৯টায় শোওয়া গেলেও ২০১৭ সালে নিয়ম বদলে হয়ে যায় রাত ১০টা। তবে, যাত্রীদের জেনে রাখা দরকার রাত ১০টার পরে টিকিট পরীক্ষকও বিরক্ত করতে পারেন না। টিটিই (ট্রাভেল টিকিট এগজামিনার)-দের উপর নির্দেশ থাকে যাতে টিকিট পরীক্ষার কাজ তাঁরা রাত ১০টার মধ্যে মিটিয়ে ফেলেন।

রাত ১০টার পরে যে ট্রেন ছাড়ছে বা যাত্রীরা ট্রেনে উঠছেন তাঁদের ক্ষেত্রে টিকিট পরীক্ষার এই সময়সীমা কার্যকর নয়। ভারতীয় রেলে ঘুমানোর যে নিয়ম, তাতে রাত ১০টা থেকে সকাল ৬টা পর্যন্ত সাইড আপার বার্থের যাত্রী লোয়ার বার্থে বসার দাবি করতে পারেন না। সাইড আপার ও লোয়ার বার্থে আরএসি-তে যাঁদের টিকিট থাকে তাঁদের ক্ষেত্রেও একই নিয়ম। সকাল ৬টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত সাইড আপার বার্থের যাত্রীরা চাইলে লোয়ার বার্থে বসতে দিতেই হবে।

অবশ্য, রেলের ঘুমনোর এই নিয়মে কোথাও জরিমানার কথা বলা নেই। কেউ মানা বা না মানা সহযাত্রীদের সঙ্গে বোঝাপড়ার উপরে সবটাই নির্ভর করছে।