মহাদেবের কৃপা দৃষ্টিতে সুখ সমৃদ্ধিতে ভরে থাকে এই তিন রাশির জাতক-জাতিকাদের জীবন

26
মহাদেবের কৃপা দৃষ্টিতে সুখ সমৃদ্ধিতে ভরে থাকে এই তিন রাশির জাতক-জাতিকাদের জীবন

শ্রাবণ মাসে শিবের ভক্তরা মহাদেবের আরাধনা করে থাকেন। এই মাসের চার সপ্তাহের চারটি সোমবারে ভক্তিভরে মহাদেবের আরাধনা করলে তার কৃপা মেলে। ভগবান প্রসন্ন হন। তবে জানেন কি জ্যোতিষ শাস্ত্র অনুসারে ১২ রাশির মধ্যে তিনটি রাশির জাতক জাতিকারা সবসময় মহাদেবের কৃপা দৃষ্টিতেই থাকেন। এই দিনটি রাশি হল মেষ, মকর এবং কুম্ভ। এই তিন রাশির জাতকদের উপর মহাদেব সদা প্রসন্ন থাকেন।

মেষ রাশি : এই রাশির জাতকদের উপর শিবের আশীর্বাদ সব সময় থাকে। এই রাশির জাতকদের উপর ভগবান শিব অল্পতেই সন্তুষ্ট হন। জ্যোতিষ শাস্ত্র অনুসারে মেষ রাশির জাতক-জাতিকাদের সর্বদা শিবের আরাধনা করা উচিত। নিয়মিত শিবলিঙ্গে জল অর্পণ করলে ভগবান সুপ্রসন্ন থাকেন।

মকর রাশি : মকর রাশির জাতক-জাতিকারাও শিবের আশীর্বাদধন্য। এই রাশির জাতক-জাতিকাদের নিয়মিত শিবের আরাধনা করা উচিত। ওম নমঃ শিবায় মন্ত্র জপ করলে শিবের কৃপা দৃষ্টি মেলে। ভগবান শিবের আশীর্বাদে এরা সর্বদা সাফল্য অর্জন করেন।

কুম্ভ রাশি : ভগবান শিব সর্বদা কুম্ভ রাশির জাতক-জাতিকাদের উপর প্রসন্ন থাকেন। জ্যোতিষ শাস্ত্র অনুসারে এই রাশির জাতক-জাতিকাদের শিবলিঙ্গে জল অর্পণ করা উচিত। নিজের ক্ষমতা অনুসারে দান ধ্যান করা উচিত। কুম্ভ রাশির জাতক-জাতিকারা দান করলে দ্বিগুণ ফল লাভ করবেন। ভগবান শিবের আশীর্বাদে কুম্ভ রাশির জাতক-জাতিকারা জীবনে সুখ সুবিধা লাভ করতে পারেন।