লোকসভার বাদল অধিবেশনে করোনায় বিনোদন জগতের দুর্দশার কথা সংসদে পেশ করলেন নুসরাত

6
লোকসভার বাদল অধিবেশনে করোনায় বিনোদন জগতের দুর্দশার কথা সংসদে পেশ করলেন নুসরাত

করোনা পরিস্থিতিতে কাজ হারিয়েছেন বহু মানুষ। বিভিন্ন অসংগঠিত ক্ষেত্র এবং বেসরকারি সংস্থান থেকে বহু কর্মী ছাঁটাই হয়েছেন। লকডাউনের পর আনলক পর্বে ধীরে ধীরে ছন্দে ফিরছে দেশ। তবে এখনো বন্ধ রয়েছে সিনেমা হল গুলি। ফলে মাল্টিপ্লেক্সে মুক্তি পাচ্ছে না সিনেমা। এদিকে, দীর্ঘদিন ধরে কাজ খুইয়ে কার্যত বেশ ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছেন বিনোদন জগতের সাথে জড়িত কর্মীরা।

এবার করোনা পরিস্থিতিতে বিনোদন জগতের ক্ষতির কথা সংসদে তুলে ধরলেন সাংসদ তথা টলিউড অভিনেত্রী নুসরাত জাহান। বুধবার, লোকসভার বাদল অধিবেশনে উপস্থিত হয়ে বিনোদন জগতের বর্তমান দুর্দশার কথা সংসদে পেশ করেছেন নুসরাত। তিনি জানিয়েছেন, মার্চ মাস থেকে বিনোদন জগতের কাজ বন্ধ থাকার ফলে অসংখ্য কর্মীর রোজগার বন্ধ হয়ে গিয়েছে। বর্তমানে তাদের সংসার চালানো এক রকম চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

নুসরাত জানিয়েছেন, একজন সাংসদ হিসেবে তিনি যতটা পারছেন সিনেমা জগতের সাথে জড়িত কর্মীদের সাহায্য করার চেষ্টা করছেন। তবে তার একার পক্ষে সবাইকে সাহায্য করা সম্ভব নয়। এবার তাই সিনেমা জগতের সাথে জড়িত শিল্পী এবং কলাকুশলীদের পাশে থাকার জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের সাহায্য চেয়েছেন তিনি। পাশাপাশি, প্রত্যেক কর্মীর জন্য সরকারি ত্রাণ প্যাকেজের সাহায্য চেয়েছেন নুসরাত।

উল্লেখ্য, আনলকের চতুর্থ পর্যায় শুরু হওয়ার মুখেই সিনেমা হলগুলো খুলে দেওয়ার পক্ষে সওয়াল করতে শুরু করেন অভিনেতা অভিনেত্রীরা। বাংলা তারকারা “আনলক সিনেমা সেভ জবস” লিখে হ্যাশট্যাগ দিয়ে তাদের দাবি জানিয়েছেন। ইতিমধ্যেই দেব, মিমি চক্রবর্তী, অঙ্কুশসহ টলিউডের বিভিন্ন সেলিব্রেটিরা অভিনেতা-অভিনেত্রীরা সিনেমা হল খোলার পক্ষে রায় দিয়েছেন। বিনোদন জগতের দুর্দশার কথা সংসদের নজরে আনার নুসরাতের এই উদ্যোগকে সমর্থন জানাচ্ছেন কলাকুশলীরা।