ভোট-পরবর্তী হিংসায় বাড়ি ছাড়াদের ঘরে ফেরানোর উদ্যোগ গ্রহণ করল কলকাতা হাইকোর্ট

7
ভোট-পরবর্তী হিংসায় বাড়ি ছাড়াদের ঘরে ফেরানোর উদ্যোগ গ্রহণ করল কলকাতা হাইকোর্ট

ভোট-পরবর্তী হিংসার জন্য যারা ঘর ছাড়া হয়েছে তাদের ঘরে ফেরানোর উদ্যোগ গ্রহণ করেছে আদালত। এই প্রসঙ্গে রাজ্য সরকারের সহযোগিতা চেয়েছে কলকাতা হাইকোর্টের বৃহত্তর বেঞ্চ। একুশের বিধানসভা নির্বাচনের পর রাজ্য জুড়ে বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ভোট-পরবর্তী হিংসার খবর পাওয়া গিয়েছে। হিংসার কবলে পড়ে বহু মানুষ প্রাণ বাঁচাতে বাড়িঘর ছেড়ে পালিয়ে গিয়েছেন। তাদের ঘরে ফেরানোর উদ্যোগ গ্রহণ করেছে কলকাতা হাইকোর্ট। রাজ্যকে এই মর্মে নির্দেশও দেওয়া হয়েছে।

ভোটের ফলাফল প্রকাশের পর হিংসার দরুন প্রাণ বাঁচাতে যারা নিজেদের ঘরবাড়ি ছেড়ে পালাতে বাধ্য হয়েছেন, তারা চাইলে লিগ্যাল সার্ভিস কর্তৃপক্ষকে ইমেলের মাধ্যমেও নিজেদের অভিযোগ জানাতে পারবেন বলে জানিয়েছে আদালত। শুক্রবার কলকাতা হাইকোর্টের বৃহত্তর বেঞ্চের তরফ থেকে এই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে যে, ঘরছাড়াদের অবিলম্বে ঘরে ফেরাতে হবে। তার জন্য ব্যবস্থা নিতে হবে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনকে।

এদিন কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতিরা জানিয়েছেন, প্রতিটি মানুষেরই স্বাধীনভাবে বাঁচার অধিকার আছে। সন্ত্রাসের কারণে যদি কেউ নিজের ঘরে ঢুকতে পারবেন না, এমনটা কখনোই হওয়া উচিত না। তাই যারা হিংসার সম্মুখীন হয়েছি মধ্যেই ঘর ছেড়েছেন তারা লিগাল সার্ভিসের কাছে ইমেইল মারফত নিজেদের অভিযোগ জানাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিভাগটি এর পর অভিযোগের তালিকাটি আদালতে পেশ করবে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ভোট-পরবর্তী হিংসার কারণে এই মুহূর্তে রাজ্যের ঠিক কতজন মানুষ ঘরছাড়া হয়েছেন, তার কোনো সঠিক পরিসংখ্যান তুলে ধরতে পারেননি অভিযোগকারীদের পক্ষের আইনজীবীরা। তাই আগে ঘরছাড়া মানুষদের পরিসংখ্যান করতে চায় কলকাতা হাইকোর্ট। তারপর যত শীঘ্র সম্ভব পরের ঘরে ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা করা হবে।