ভারতে এবার চিরতরে বন্ধ হতে চলেছে সমস্ত বিতর্কিত চীনা অ্যাপ

5
ভারতে এবার চিরতরে বন্ধ হতে চলেছে সমস্ত বিতর্কিত চীনা অ্যাপ

গ্রাহকদের তথ্য চুরির অপরাধে গত বছর ৫৯টি চিনা অ্যাপের ব্যবহার ভারতের সাময়িকভাবে বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল কেন্দ্রীয় সরকার। Tiktok, Helo, UC Browser, Shareit এর মতো জনপ্রিয় অ্যাপগুলি ছিল এই লিস্টে। এই অ্যাপগুলির বিরুদ্ধে যে অভিযোগ উঠেছিল, সেই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে উপযুক্ত জবাব দিতে পারেনি অ্যাপ কর্তৃপক্ষ। তাই এবার চিরতরে অ্যাপগুলিকে ভারতে বন্ধ করার পথে হাঁটছে কেন্দ্রীয় সরকার।

ভারতের বিভিন্ন নিরাপত্তা সংস্থা বহুবার এই সকল সফটওয়্যার অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহারের বিরুদ্ধে সওয়াল করে এসেছে। এই অ্যাপগুলি বিরুদ্ধে ভারতীয় গ্রাহকদের তথ্য চুরির অভিযোগ উঠেছে। গালওয়ান উপত্যকা ভারত-চীন সীমান্ত সংঘর্ষের পর ভারতের সার্বভৌমত্ব, নিরাপত্তা এবং গোপনীয়তা রক্ষার্থে চীনা অ্যাপগুলিকে বাতিল করার পথে হাঁটে ভারত সরকার।

সাময়িকভাবে এই ৫৯টি চীনা অ্যাপ বাতিল করার পাশাপাশি অ্যাপ কর্তৃপক্ষকে ভারতের তরফ থেকে নোটিশ পাঠানো হয়। এই অ্যাপ্লিকেশন সম্পর্কিত যাবতীয় তথ্য জানতে ৭৯টি প্রশ্নের একটি তালিকা কর্তৃপক্ষকে পাঠানো হয়েছিল। পাশাপাশি জবাব দেওয়ার জন্য নির্দিষ্ট সময়ও বেঁধে দেওয়া হয়। সেই সময়ের মধ্যে যথাযথ উত্তর দিয়ে উঠতে পারেনি অ্যাপ কর্তৃপক্ষ। তাই এবার চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে ভারত সরকার।

কেন্দ্রীয় সূত্রে খবর, অ্যাপ কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে যে উত্তর এসেছে তাতে সন্তুষ্ট নয় কেন্দ্র। তাই এবার ভারতের তরফ থেকে বড়সড় শাস্তির মুখে পড়তে চলেছে এই বিতর্কিত অ্যাপ্লিকেশনগুলি। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, টিকটকসহ অন্যান্য জনপ্রিয় অ্যাপ পুনরায় ভারতে চালু হবে, এমনটাই আশা করেছিলেন ব্যবহারকারীরা। তবে ভারতের নিরাপত্তা প্রসঙ্গে কোনো আপস করবে না ভারত সরকার। তাই এবার চিরতরে বন্ধ হতে চলেছে এই সকল বিতর্কিত চীনা অ্যাপ।