ব্যবসা করতে চাইলে দেখে নিন ট্রাভেল এজেন্টের ব্যবসা! জেনে নিন বিস্তারিত

22
ব্যবসা করতে চাইলে দেখে নিন ট্রাভেল এজেন্টের ব্যবসা! জেনে নিন বিস্তারিত

আমাদের জীবনে সবথেকে ক্ষণস্থায়ী এই সময়। সময়কে যদি সঠিক ভাবে গুরুত্ব না দেওয়া হয় তাহলে সময় আমাদের গুরুত্ব দেয় না। বর্তমান পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে আরেকটি কথা আমরা খুব ভালোভাবে বুঝতে পেরেছি। সচল ভাবে জীবন যাপন করার জন্য চাকরির পাশাপাশি দরকার ব্যবসা। অন্যের কাছে পারিশ্রমিকের বিনিময়ে কাজ করলে যেকোনো সময় সেই চাকরি হাতছাড়া হয়ে যেতে পারে। কিন্তু ব্যবসার ক্ষেত্রে সেই ভয় থাকে না।

তবে শুধু এখনকার পৃথিবীতে নয়, আজ থেকে বহু বছর আগেও ব্যবসার ক্ষেত্রে মানুষের সমান ভাবে আগ্রহ ছিল। ১৯৮৫ সালে RTSA স্কিম চালু করা হয়েছিল যেখানে এজেন্ট দের ভালো পারিশ্রমিক দেয়া হতো। টিকিট বুক করার পরিবর্তে তাদের দেওয়া হতো মোটা পারিশ্রমিক। যখন কোন ইউজার লগইন করে, তখন আইআরটিসি অ্যাপ্লিকেশন ডিজিটাল প্রমাণপত্র দিয়ে প্রমাণ করতে হবে, প্রমানপত্র যদি সঠিক হয় তাহলে টিকিট বুকিং এর অনুমতি দেওয়া হয়।

একজন আইআরটিসি হয়ে আপনি যদি নন এসি ক্লাসে প্রতি পিএনআরে ২০ টাকা ও প্রতি এসি ক্লাসের পিএনআরে ৪০ টাকা পেতে পারেন৷ এজেন্ট হিসেবে ২০০০ টাকা -র বেশির লেনদেনে পাওয়া যায় অতিরিক্ত ১ শতাংশ৷ এক মাসে যত খুশি টিকিট বুক করতে পারেন আপনি। প্রত্যেক টিকিট পিছু আপনি কমিশন পেয়ে যাবেন। একজন এজেন্ট প্রত্যেক মাসে নিয়মিত টিকিট বুক করলে প্রায় ৮০ হাজার টাকার বেশি ইনকাম করতে পারবেন।

আইআরটিসি এজেন্ট হয় আপনি সচ্ছল ভাবে জীবন যাপন করতে পারেন। তবে এর জন্য রেলওয়ে ট্রাভেল সার্ভিস এজেন্ট হতে হবে আপনাকে। এজেন্ট হওয়ার জন্য দ্বাদশ শ্রেণী পাস হতে হবে আপনাকে। তার জন্য প্রথমে আপনাকে আইআরসিটিসি অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে যেতে হবে। সেখানে ফর্ম ফিলাপ করতে হবে। এরপর প্যান কার্ড, আধার কার্ড, মোবাইল নম্বর, সঠিক পরিচয় পত্র, বৈধ ইমেইল আইডি দিয়ে ফর্ম ফিলাপ করতে হবে। বুকিং এজেন্সি দেওয়ার জন্য দুটি প্ল্যান রয়েছে একটিতে ৩৯৯৯ টাকা দিয়ে এক বছরের জন্য এজেন্সি দিতে হবে, এছাড়া ৬৯৯৯ টাকা দিয়ে ২ বছরের জন্য এজেন্সি নেওয়া যেতে পারে৷ এরজন্য আপনাকে একটি ডিমান্ড ড্রাফট বানাতে হবে৷