বাংলাদেশ নিয়ে মুখ খুললে দুধেল গাইরা চটে যাবে! মুখ্যমন্ত্রীকে কটাক্ষ শুভেন্দু অধিকারীর

13
বাংলাদেশ নিয়ে মুখ খুললে দুধেল গাইরা চটে যাবে! মুখ্যমন্ত্রীকে কটাক্ষ শুভেন্দু অধিকারীর

বাংলাদেশের হিন্দু মন্দিরে ভাঙচুর এবং দেবী দুর্গার প্রতিমা ভাঙচুরকে কেন্দ্র করে ভারতবর্ষ উত্তাল হয়ে রয়েছে। ভারত বর্ষ এই ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ করেছে। অথচ বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই সম্পর্কে টু শব্দটিও করেননি। এমতাবস্থায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে তুলোধোনা করলেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী।

মুখ্যমন্ত্রীর স্রেফ নিজের স্বার্থসিদ্ধির জন্য নীরব রয়েছেন বলে দাবি করেছেন শুভেন্দু। বাংলাদেশী হিন্দুদের উপর ঘটে যাওয়া ঘটনার প্রতিবাদ জানাতে কলকাতায় বাংলাদেশের উপদূতাবাসে যান শুভেন্দু অধিকারী। সেখানে গিয়ে তিনি বাংলাদেশের সনাতনী হিন্দুদের উপর লাগাতার হিংসা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন। বিশ্বের যেকোনো প্রান্তে হিন্দুরা বিপদে পড়লে তাঁদের অধিকার ও সুরক্ষার জন্য লড়াই করার জন্য প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হয়েছেন তিনি।

এরপর তিনি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কটাক্ষ করে বলেন, ভবানীপুর উপনির্বাচনের সময় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দাবি করেছিলেন তিনি হিন্দু ঘরের মেয়ে, তাই প্রধানমন্ত্রী তাকে রোমে যাওয়ার অনুমতি দেননি। আজ বাংলাদেশে এত বড় ঘটনা ঘটে যাওয়ার পরেও কেন চুপ রয়েছেন তিনি? ভোটব্যাঙ্কে টান পড়বে বলেই কি মুখ্যমন্ত্রী পাঁচ দিন ধরে চুপ রয়েছেন?

এরপর শুভেন্দু অধিকারী বলেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সংখ্যাগুরুদের সংখ্যালঘু ভোট পেয়েছেন বলেই ওনার কোনো দায়বদ্ধতা নেই। ২০১৯ সালে মুখ্যমন্ত্রী সবার সামনেই বলেছিলেন, যে গরু দুধ দেয় তার লাথি খাওয়াও ভালো! এই বাংলাদেশ নিয়ে মুখ খুললেন দুধেল গাইরা চটে যাবে বলে মুখ্যমন্ত্রী চুপ আছেন বলে কটাক্ষ করেছেন শুভেন্দু অধিকারী।