সদ্য করোনা মুক্ত হলে ৬ মাস পর নেবেন টিকা! এমনটাই নির্দেশ দিচ্ছে কেন্দ্রীয় প্যানেল

10
সদ্য করোনা মুক্ত হলে ৬ মাস পর নেবেন টিকা! এমনটাই নির্দেশ দিচ্ছে কেন্দ্রীয় প্যানেল

আপনি যদি হন করোনা আক্রান্ত, অথবা করোনা টিকার প্রথম ডোজ নেবার পর হঠাৎ করেই ভাইরাসের আক্রমণ হয়েছে আপনার উপর। তাহলে কেন্দ্রীয় প্যানেলের নতুন উপদেশ ও নির্দেশনা অনুযায়ী এক্ষুনি আপনার করোনা টিকা নেওয়া উচিত নয়। কেন্দ্রীয় প্যানেলের নতুন সুপারিশ অনুযায়ী যারা করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে অসুস্থ হয়েছেন, তারা যেন ৬ মাস অপেক্ষা করে তারপর করোনা। টিকা নেওয়া শুরু করেন। দা ন্যাশনাল টেকনিক্যাল অ্যাডভাইজারি গ্রুপ অফ ইমুনাইজেশন এর তরফ থেকে এমনই সুপারিশ করা হয়েছে।

এরই সঙ্গে উপদেষ্টা প্যানেলের সুপারিশ অনুযায়ী, করণা টিকা নেয়ার ক্ষেত্রে দুটি ডোজের মধ্যকার সময়সীমা আরও বাড়ানো উচিত। প্রথম টিকার পর অপেক্ষা করতে হবে ১২ থেকে ১৬ সপ্তাহ। কিন্তু দেশজুড়ে হঠাৎ করে ভ্যাকসিনের বিশাল আকাল পড়ার পর হঠাৎ করে এই রকম একটি সুপারিশ স্বাভাবিকভাবেই মানুষের মনে প্রশ্নের উদ্রেক করেছে।

দ্য ন্যাশনাল টেকনিকাল অ্যাডভাইজরি গ্রুপ অন ইমিউনিজেশন (NTAGI)-এর এই সুপারিশ এবার পাঠানো হবে ন্যাশনাল এক্সপার্ট গ্রুপ অন ভ্যাকসিন অ্যাডমিনিস্ট্রেশন ফর কোভিড ১৯-এর (NEGVAC) আধিকারিকদের কাছে। সেখান থেকে অনুমতি পাবার পর দেশজুড়ে নির্দেশিকা ঘোষণা করা হবে। মার্চ মাসের প্রথম সপ্তাহে নির্দেশিকা জারি অনুযায়ী দুটি ডোজের মধ্যে সময়সীমা ৬ থেকে ৮ সপ্তাহ করা হয়েছিল।

দুগ্ধ প্রদানকারী অথবা অন্তঃসত্ত্বা মহিলা যদি করোনাভাইরাস নেন, তাহলে তিনি করনা র দুটি টিকার যেকোনো একটি নিতে পারেন বলে জানানো হয়েছে। তবে সন্তান জন্ম দেবার পর এই টিকা নেওয়ার কথা বলা হয়েছে। গর্ভাবস্থায় যেন কোনোভাবেই ঠিকানা নেওয়া হয়। যদিও বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন যে, অন্তঃসত্ত্বাদের টিকার ক্ষেত্রে কোন রকম সমস্যা হবে না।