মেট্রো চলাচলের পর যদি পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকে তবে চলতে পারে লোকাল ট্রেন গুলিও

9
মেট্রো চলাচলের পর যদি পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকে তবে চলতে পারে লোকাল ট্রেন গুলিও

দীর্ঘ ছয় মাস পরে আগামী সপ্তাহের সোমবার থেকে রাজ্যে মেট্রো পরিষেবা চালু হচ্ছে। ইতিমধ্যেই সেই‌ সংক্রান্ত তোড়জোড় শুরু হয়ে গেছে মেট্রো দপ্তরে। এবার,পুজোর আগে লোকাল ট্রেন গুলিও চালানোর পরিকল্পনা করছে ভারতীয় রেল বোর্ড। সম্প্রতি দক্ষিণ-পূর্ব রেলের জেনারেল ম্যানেজারের বক্তব্য থেকে এমনই ইঙ্গিত মিলল। তবে এ বিষয়ে আগে রাজ্যের অনুমতি প্রয়োজন। তাই রাজ্য সরকারের সাথে আলোচনার তোড়জোড় শুরু করে দিয়েছে রেল কর্তৃপক্ষ।

রাজ্যে লোকাল ট্রেন পরিষেবা চালু করার বিষয়ে আলোচনা করার জন্য রাজ্য সরকারের সাথে বৈঠকে বসার জন্য ইতিমধ্যেই চিঠির মাধ্যমে আবেদন পাঠিয়েছে রেল কর্তৃপক্ষ। শীঘ্রই পূর্ব রেল এবং দক্ষিণ-পূর্ব রেলের আধিকারিকরা রাজ্য সরকারের সাথে বৈঠকে বসবেন বলে জানা গেছে। রাজ্য সরকারের সাথে আলোচনার পরেই লোকাল ট্রেন চালনা সম্পর্কে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন পূর্ব রেলওয়ের জেনারেল ম্যানেজার।

তবে রাজ্যে লোকাল ট্রেন চালনার ভবিষ্যৎ কি হতে চলেছে তা অনেকাংশেই নির্ভর করছে মেট্রো রেল চলাচলের ফলাফলের উপর। মেট্রো রেল চলাচলের পর যদি পরিস্থিতি স্বাভাবিক এবং নিয়ন্ত্রণের মধ্যে থাকে, তাহলে আগামী দিনে লোকাল ট্রেন চালনা সম্পর্কে সিদ্ধান্তে আসা যেতে পারে। পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে তবেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন জেনারেল ম্যানেজার। তবে এবার থেকে, টিকিট বুকিংয়ের ক্ষেত্রে ডিজিটাল মাধ্যমকেই আপন করা হবে বলে জানিয়েছেন রেল আধিকারিক।

উল্লেখ্য, অসংখ্য বিধি-নিষেধ মেনে আগামী সপ্তাহ থেকে রাজ্যে মেট্রো পরিষেবা শুরু করা হচ্ছে। মেট্রো স্টেশনে ভীড় সামলানোর জন্য আরপিএফ এবং লোকাল থানার পুলিশ মোতায়েন করা থাকবে। তবে, লোকাল ট্রেনের ক্ষেত্রে ভীড় সামলানো রেল কর্তৃপক্ষের কাছে যথেষ্ট চ্যালেঞ্জের বিষয়। রেলওয়ে বোর্ডের সমীক্ষা অনুযায়ী, প্রতিদিন প্রায় ত্রিশ লক্ষ যাত্রী লোকাল ট্রেনের মাধ্যমে যাতায়াত করেন। তাই লোকাল ট্রেন পরিষেবা চালু করার আগে, সম্পূর্ণ প্রস্তুতি নেওয়া প্রয়োজন।