জেতার জন্য কখনই দুর্নীতি করব নাঃ ইমরান খান

7
জেতার জন্য কখনই দুর্নীতি করব নাঃ ইমরান খান

জাতীয় উদ্দেশ্যে যখন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ভাষণ দিয়েছিলেন সেই সময়, চরমভাবে কটাক্ষ করেন অন্যান্য বিরোধী দলগুলোকে। তার মতে বিরোধী যে সমস্ত দলগুলির রয়েছে সেই দলগুলি গণতন্ত্রকে একটা হাসির জিনিস হিসেবে দেখছেন। ইমরান খান বলেন যে, বিরোধী দলগুলোর প্রার্থী ইউসুফ রাজা গিলানি তিনি নাকি জনগণের মধ্যে টাকা বিলি করছেন নির্বাচনের আগে।

ইমরান খান শনিবার দিন আস্থা ভোটের কথা তোলেন এবং সেই সম্পর্কে বলেন যে, “ভোট হওয়ার আগেই তিনি রাজি হেরে যেতে এবং সেই হার স্বীকার করতেও তার লজ্জা বোধ হবে না, কিন্তু তিনি কখনই জেতার জন্য দুর্নীতি করবেন না”।

ইমরান খান আরো বলেন যে,” বিরোধী দলের নেতারা ভেবেছিল, তার ওপর অবাস্তব সমস্ত প্রস্তাব রেখে সমস্ত মামলা বিরোধী দলের নেতার বিরুদ্ধে করা হয়েছে সেগুলো কে তিনি উঠিয়ে দেবেন কারণ তিনি নিজের পদকে বাঁচাতে চাইবেন সেইজন্যে”। তিনি আরো বলেন যে,” তিনি তার দলের যে সমস্ত নেতারা রয়েছে তাদের প্রত্যেককেই বলবেন যে যদি কেউ ইচ্ছুক থাকেন তার সঙ্গে থাকতে তাহলেই যেন থাকেন, কারণ দলে থাকা বা না থাকার সেটা যার যার ব্যক্তিগত অধিকার। যার যার অন্যদলে যাওয়ার ইচ্ছে হতে পারে, তার যদি মনে হয় তাহলে তিনি বিরোধী পক্ষ হয়েও লড়বেন”।

বিরোধী দলের যে সমস্ত নেতারা রয়েছেন তাদেরকে ইমরান খান চ্যালেঞ্জ দিয়ে বলেন যে,” বিধানসভায় তিনি একটি প্রস্তাব আনছেন। তিনি হারুক অথবা জিতুক তাতে তার কোন এসে যাবে না, কারণ যতদিন না পর্যন্ত সেই সমস্ত নেতারা দেশের টাকা ফেরত দিচ্ছে ততদিন পর্যন্ত তাদের কাউকেই তিনি ছাড়বেন না। যতদিন তিনি বেঁচে থাকবেন ততদিন পর্যন্ত এসমস্ত দুর্নীতিগ্রস্ত নেতাদের বিরুদ্ধে তিনি লড়ে যাবেন”।

ইমরান খানের মতে তিনি রাজনীতিতে কখনোই টাকা কামাতে আসেননি। টাকা তার কাছে রাজনীতিতে পা দেওয়ার আগেও ছিল। ইমরান খান মনে করেন যে, তার নাম এবং সম্পত্তি সমস্তকিছুই রাজনীতিতে আসার আগে পর্যন্ত ছিল সেই জন্য তিনি কখনোই রাজনীতি থেকে সরে যেতে ভয় পান না। তার মতে একটি স্বাধীন পাকিস্তান দেখার জন্য অনেক প্রধানমন্ত্রী চেষ্টা করেছেন কিন্তু কেউ সফল হতে পারেননি।