আগে বেপরোয়া ভাবে বুথে ঢুকে যেতাম সেটা এখন আর করা যাবে না, বেফাঁস মন্ত্যব্য করে বিতর্কে জড়ালেন তৃণমূল নেতা

14
আগে বেপরোয়া ভাবে বুথে ঢুকে যেতাম সেটা এখন আর করা যাবে না, বেফাঁস মন্ত্যব্য করে বিতর্কে জড়ালেন তৃণমূল নেতা

এযেনো কেঁচো খুঁড়তে কেউটে বেরিয়ে যাওয়ার জোগাড়। কারণ এবার যে নির্বাচন কমিশন আগের মত গা ঢেলামি করবে না, সেটা স্পষ্ট। আগের থেকে একেবারে তোড়জোড় সেরে রাখতে চাইছে নির্বাচন কমিশন, আর সেই প্রসঙ্গ তুলে বীরভূম সাঁইথিয়া ব্লক তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি একেবারে এক বেফাঁস মন্তব্য করে বসলেন। আগে যেভাবে ভোট চলাকালীন বুথে ঢোকা গেছে এবার থেকে সেটা একেবারেই নিষিদ্ধ হতে চলেছে।

এবার এই প্রসঙ্গ টেনেই ব্লক সভাপতি সাবের আলী এক বেফাঁস মন্তব্য করে বসলেন, তিনি বললেন দলের কাজ নিয়ে কোন প্রশ্ন নেই তারা খুব উৎসাহের সাথে কাজ করে চলেছে, কিন্তু একটা সময় আমরা যেভাবে বুথের ভেতরে ঢুকতে পারতাম অবশ্য এটা গোপনীয় ভাবে সেটা এখন আর করা যাবে না। এখানেই শেষ নয় তিনি সাথে আরও বলেছেন, আমরা যেভাবে আগে বুথে মানুষ ঢুকাতাম, যেভাবে ভোট করাতাম এমনকি বেপরোয়া ভাবে বুথে ঢুকে যেতাম সেটা এখন আর করা যাবে না।

আর এই ধরনের বেফাঁস মন্তব্যের ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়াতে এখন সময় লাগে না, সোশ্যাল মিডিয়ায় আসতেই নিমিষে ভাইরাল হয়ে যায় এই ভিডিও আর তারপর থেকেই বিভিন্ন রাজনৈতিক মহলে উঠতে থাকে প্রশ্ন। তাহলে কি এতদিন জালিয়াতি ভাবেই ভোট নিয়ে এসেছে তৃণমূল? আর এই নির্বাচন কমিশনের করা করি দেখেই কি তারা এখন অনেকটাই চাপের মধ্যে?