স্টার বা সুপারস্টার কোনটাই বলতে অথবা মানতে পছন্দ করিনাঃ অভিষেক চ্যাটার্জী

20
স্টার বা সুপারস্টার কোনটাই বলতে অথবা মানতে পছন্দ করিনাঃ অভিষেক চ্যাটার্জী

টলিউডে প্রচুর সিনেমা করলেও সেই ভাবে নিজেকে প্রমাণিত করতে পারেননি তিনি। তার মত সুদর্শন চেহারা খুব কম অভিনেতার ছিল। কিন্তু সেইভাবে নায়কের চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা যায়নি তাকে। অভিনয় করতে করতে হঠাৎ করেই তিনি টলিউড থেকে উধাও হয়ে যান। ঠিকই বলছেন কথা বলছি অভিষেক চট্টোপাধ্যায়ের, যিনি ইন্ডাস্ট্রির নোংরা ষড়যন্ত্রের শিকার হয়ে টলিউড থেকে হারিয়ে গিয়েছিলেন। তার ক্যারিয়ার নষ্ট হয়ে যাওয়ার নেপথ্যে রয়েছেন প্রসেনজিৎ এবং ঋতুপর্ণার নোংরা রাজনীতি।

যাত্রা থিয়েটার করে অভিনয় করার ইচ্ছাটা সব সময় মনের মধ্যে পালন করতেন তিনি। সিনেমাতে সেইভাবে না দেখা গেলেও টেলিভিশনের বিভিন্ন সিরিয়ালে তাকে দেখা দিয়েছে অভিনয় করতে। পর্দায় তার উপস্থিতি বারবার এটাই প্রমাণ করে যে, দর্শক আজও অভিষেক চ্যাটার্জীকে মন থেকে ভালোবাসে।

অভিষেক চ্যাটার্জীর কোন ফেসবুক অ্যাকাউন্ট না থাকলেও রয়েছে একটি ফেসবুক পেজ। এই পেজে মাঝে মাঝেই তিনি নিজের ব্যক্তিগত মুহূর্তের ছবি শেয়ার করে থাকেন। পরিবারের কারো জন্মদিন হোক অথবা নিজের বিবাহ বার্ষিকী, নিজের পছন্দের কিছু ছবি সবকিছু তিনি শেয়ার করে থাকেন এই পেজে। সোশ্যাল মিডিয়া থেকে এতটা কেন তিনি দূরে থাকেন, তা নিয়ে সম্প্রতি তিনি সংবাদমাধ্যমের সামনে কিছু কথা বললেন

সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে অভিষেক জানালেন, তার নামে যে ফেসবুক পেজটি রয়েছে সেটি পরিচালনা করেন তার স্ত্রী। তিনি নিজে থেকে সেই ভাবে সোশ্যাল মিডিয়ায় অ্যাকটিভ থাকতে পছন্দ করেন না। তিনি তার কাজ নিয়ে ডুবে থাকতে ভালোবাসেন। বর্তমান সময়ে যে তারকারা রয়েছেন তারা সব সময় সোশ্যাল মিডিয়া নিয়ে মেতে থাকতে চান, এটা করে কাজের ক্ষেত্রে ভীষণভাবে প্রভাব পড়ে। যদিও এই ট্রেন্ডে নিজেকে ভাসিয়ে দিতে একেবারেই নারাজ অভিষেক।

কেন এতটা অনীহা সোশ্যাল মিডিয়ার প্রতি? প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, আমার শুধু হোয়াটসঅ্যাপ রয়েছে। আমার কোনো ফেসবুক নেই। তবে আমার একটি নিজস্ব পেয়ে যাচ্ছে যেটি মেন্টেন করেন আমার মিসেস। সেটি আমার একদম নিজস্ব পেজ। লক্ষাধিক মানুষ এই পেজের ফলোয়ার। সেখানে আমি শুধুমাত্র আমার পার্সোনাল কিছু জিনিস শেয়ার করি।

বর্তমান প্রজন্ম এবং পুরনো প্রজন্মের অনেক তারকা সোশ্যাল মিডিয়ার দ্বারা সকলের সঙ্গে সংযোগ স্থাপন করতে চান এই কথার উত্তরে তিনি বলেন, আমি সবসময় নিজেকে একজন শিল্পী বলে মনে করতে বেশি ভালোবাসি। স্টার অথবা সুপারস্টার কোনটাই আমি বলতে অথবা মানতে পছন্দ করিনা। স্যার সেলিব্রিটি এইসবের খুব একটা ভ্যালু আমার কাছে নেই। এই সব কিছুতে আমার কিছু এসে যায় না।

বর্ষীয়ান অভিনেতা আরও জানিয়েছেন, স্টার অনেকেই আছে। আবার অনেকেই স্টার না হলেও নিজেকে স্টার বলে দাবি করতে পছন্দ করেন। আবার অনেকে নিজেদের সুপারস্টার মনে করেন। আমার কাছে একজন সেলিব্রিটির খুব একটা দাম নেই। আমার কাছে একজন শিল্পীর দাম অনেক বেশি।