বাথরুমে ঢুকলে অন্তত এক ঘন্টার আগে বেরোতে চায় না স্বামী! নেট মাধ্যমে সমাধান চাইলেন স্ত্রী

11
বাথরুমে ঢুকলে অন্তত এক ঘন্টার আগে বেরোতে চায় না স্বামী! নেট মাধ্যমে সমাধান চাইলেন স্ত্রী

শুধুমাত্র মহিলারা বাথরুমে অথবা আয়নার সামনে ঘন্টার পর ঘন্টা কাটিয়ে দেন তা কিন্তু নয়, অনেক সময় দেখতে পাওয়া যায় বাথরুমে ঢুকলে অনেক পুরুষ বাথরুম থেকে বেরোতে চায় না। এমনই একজন মহিলা এই অদ্ভুত সমস্যার মধ্যে পড়ে ছিলেন। তার স্বামী বাথরুমে ঢুকলে অন্তত এক ঘন্টার আগে বেরোতে চায় না। বারবার আসি আসি বললেও বাথরুম থেকে বের হতে চান না তিনি। বহুদিনের এই অভ্যাসে রীতিমত বিরক্ত হয়ে গেছে স্ত্রী।

শুধুমাত্র বাড়িতে এমনটা হয় তা কিন্তু নয়, একবার বাড়ির বাইরে রেস্তোরায় খেতে স্বামী জানান যে তিনি বাথরুমে যাচ্ছেন। তার স্ত্রী বারবার বলে দেন, কোনভাবেই যেন দেরি করেন না তিনি। সম্মতি জানিয়ে বাথরুমে চলে গেলেও কুড়ি মিনিট ধরে বাথরুমে ছিলেন তার স্বামী। এমনকি অধৈর্য হয়ে যখন স্ত্রী বাথরুমে গিয়ে স্বামীকে ডাকেন, তখন তার স্বামী বলেন যে,আমি আসছি আর একটু। অবশেষে অধৈর্য হয়ে রেস্টুরেন্ট থেকে বেরিয়ে যান ওই মহিলা।

এর পরেই অধৈর্য হয়ে নেট মাধ্যমের শরণাপন্ন হন ওই মহিলা। তিনি সাহায্য চেয়ে নিজের স্বামীর সমস্ত কথা জানান। তার কথা শুনেই নেটিজেনরা নিজেদের মতামত জানান। কেউ কেউ বলেন, নিশ্চয়ই আপনার স্বামী বাথরুমে গিয়ে হস্তমৈথুন করছে। আবার কেউ কেউ বলেন, আপনার স্বামী হয়তো ভিডিও গেম খেলে। আবার অনেকের মত অনুযায়ী, আপনার স্বামীর এমন কিছু সমস্যা রয়েছে যা আপনাকে বলতে পারছে না।

সর্বশেষে একজন বলেন, আপনি আপনার স্বামীকে ফোন নিয়ে বাথরুমে যেতে দেবেন না। দেখবেন, সমস্ত সমস্যার সমাধান হয়ে গেছে। যদি এরপরেও আপনার স্বামী অনেকক্ষণ বাথরুমে সময় কাটান তাহলে বুঝবেন কোনো গুরুতর সমস্যার মধ্যে উনি আছেন। সেই ক্ষেত্রে চিকিৎসকের পরামর্শ নেবেন আপনি।

যদিও এর পরে ওই মহিলার সমস্যা সমাধান হয়েছে কিনা তা জানা যায়নি। সোশ্যাল মিডিয়াতে এই ভাবেই মানুষের ব্যক্তিগত সমস্যা সকলের সামনে উঠে আসছে এক এক করে।