আম্ফানের থেকেও বিধ্বংসী রুপে ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘তাউটে’

14
আম্ফানের থেকেও বিধ্বংসী রুপে ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘তাউটে’

এ যেন আম্ফান এর থেকেও এক কাঠি ওপরে চলতি বছরের ঘূর্ণিঝড়। ঘূর্ণিঝড় যে ঠিক কি হতে পারে, তা বোধহয় পশ্চিমবঙ্গের মানুষ খুব ভালোভাবে বুঝে গেছে গত বছর। তবে এই বছর বিধ্বংসী ঘূর্ণিঝড়ের প্রত্যক্ষ প্রমাণ পেতে চলেছে গুজরাট উপকূল এলাকা। ইতিমধ্যেই আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছেন যে, আপাতত ঘন্টায় ১৮০ থেকে ১৯০ কিলোমিটার বেগে বইছে ঝড়। এই ঝর আস্তে আস্তে ২১০ কিলোমিটার ছাড়িয়ে যাচ্ছে।

সোমবার উপকূলে যে ঘূর্ণিঝড় পূর্ব-মধ্য আরব সাগরের অবস্থান করছিল, তা আসতে গুজরাট উপকূলের দিকে ধেয়ে যাচ্ছে।আপাতত সেটি দিউয়ের দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পশ্চিমে ২২০ কিলোমিটার, গুজরাতের ভেরাবলের দক্ষিণ-পূর্বে ২৬০ কিলোমিটার এবং মুম্বইয়ের দক্ষিণে ১৫০ কিলোমিটারে দূরে অবস্থিত।

আগামী কয়েক ঘন্টার মধ্যে গুজরাট উপকূলের কাছে পৌঁছে যাবে সেটি। তারপর সোমবার পর্বন্দর এবং মহুভার মাঝখান দিয়ে গিয়ে এটি গুজরাট উপকূল বার করবে। ঘুনি ঝড়ের দাপটে ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে পোরবন্দর, আমরেলি জুনাগড়, গির, সোমনাথ, বোতাড়, ভাবনগর এবং আমদাবাদের উপকূলবর্তী এলাকা়। রেললাইন এবং সড়কপথে ঘূর্ণিঝড়ের ব্যাপক প্রভাব পড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। এছাড়াও অজস্র বিদ্যুতের খুঁটি এবং গাছ উপড়ে পড়তে পারে।