ফের বিরাট পতন সোনার দামে

19
ফের বিরাট পতন সোনার দামে

বাঙালি থেকে অবাঙালি সকলের জীবনেই সোনার প্রতি বিশেষ স্থান আছে । বলতে গেলে বিয়ে থেকে শুরু করে অন্যান্য যা যা অনুষ্ঠান সমস্ত কিছুতেই সোনা একটি বিশেষ ধাতু, সেই জন্যেই সোনার দাম যদি বাড়ে তাহলে স্বাভাবিকভাবেই উচ্চস্তরের মানুষদের কতটা ফারাক না পড়লেও মধ্যবিত্তদের কাছে বেশ কষ্টের ব্যাপার হয়ে দাঁড়ায়।

মধ্যবিত্ত বাঙ্গালীদের বাড়িতে মেয়ে অথবা ছেলে থাকলে তাদের বিয়ে দেওয়ার জন্য অবশ্যই চিন্তার ব্যাপার হয়ে দাঁড়ায় সোনার দাম বাড়লে । গত বছরে করোনা পরিস্থিতির জন্য সোনার দাম পৌঁছে গিয়েছিল উচ্চস্তরে, সুতরাং স্বাভাবিকভাবেই সাধারণ মানুষদের চোখেমুখে চিন্তার ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছিল সোনা কেনাটা।

গতবছরের দীপাবলীর সময়ে সোনার দাম কিছুটা কমলেও তা হঠাৎ করেই আবার বেড়ে গিয়েছিল। কিন্তু নতুন বছর পরার সাথে সাথেই সোনার দাম কমতে শুরু করল। সোনার দাম ছাড়িয়ে গিয়েছিল প্রায় ৫৬,০০০ এর কাছাকাছি কিন্তু সেটা সময় যেতে যেতে কমে যাচ্ছে।

সোনার দাম কমা মানে মানুষের কাছে সেটা কতটা স্বস্তির ব্যাপার সেটা হয়তো বোঝাই যায় দোকানে ভিড় দেখলে। গত ১০ মাসে তুলনায় সবথেকে কম এ এসে দাঁড়াল সোনার দাম। ২০২১ সালের পহেলা জানুয়ারিতে সোনার দাম যা ছিল, থেকে প্রায় অনেক অংশ কমে দাঁড়িয়েছে মার্চ মাসের ২ তারিখ।

এমসিএক্স মার্চ মাসের ২ তারিখে সোনার দাম কমে দাঁড়ালো০.১১ শতাংশ এবং ১০ গ্রাম সোনার দাম হলো ৪৫ হাজার ৫০০ টাকা। গত সপ্তাহে প্রায় ছয় বার সোনার দাম কমেছে। গত ১০ মাসে প্রায় ১১ হাজার টাকা কমেছে সোনার দামে। সোনার দাম কমে থাকলেও রুপোর দামে কোনরকম তফাৎ হয়নি। বর্তমানেও প্রতি কিলোগ্রাম রুপার দাম এখনও ৬৯২১৬ টাকাই রয়েছে।