এই অতিমারিতেও কীভাবে সঞ্চয় করবেন টাকা? দেখে নিন বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ

15
এই অতিমারিতেও কীভাবে সঞ্চয় করবেন টাকা? দেখে নিন বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ

বিশ্বের একটা বড় অংশের মানুষের রোজগার বা আয় কমে গেছে করোনা অতিমারির কারনে। অনেকে কর্মহীন হয়ে পড়েছেন। সংকটজনক এই পরিস্থিতিই ব্যক্তিগত আর্থিক ব্যবস্থা গোছগাছ করে নেওয়ার একটা সুযোগ এসেছে, বলছেন অর্থনৈতিক পরামর্শদাতারা।

তবে, এক টাকা সঞ্চয় করা এক টাকা উপার্জনের মতোই। এমনটাই বলে থাকেন অর্থনৈতিক পরামর্শদাতারা।
এক পরামর্শদাতা সঞ্চয়ে উৎসাহ দিতে জানান, সঞ্চয় খুব বেশি কষ্টকর বা বিরক্তিকর নয়।

তবে কখনো কখনো আপনাকে গতানুগতিকতার বাইরে ভাবতে হবে। আপনার চারপাশের মানুষের কাছ থেকে ইতিবাচক আইডিয়া নিতে পারেন। সম্ভাবনা অসীম।

অর্থনৈতিক পরামর্শদাতারা জানান, এই পরিস্থিতিতে অনেকেই নিজেদের খরচ-খরচা নিয়ে নতুন করে ভাবতে শুরু করেছেন। কী করে সঞ্চয় করা যায়, তা নিয়ে ভাবনা-চিন্তা শুরু করেছেন। অনেকে আর্থিক লক্ষ্যও ঠিক করতে শুরু করেছেন। এই পরিস্থিতিতে একাংশ বিশেষজ্ঞ সঞ্চয়ের উপায় বাতলে দিচ্ছেন। সেই পদক্ষেপগুলি জেনে নিন।

ব্যবহার করতে পারেন ক্যাশ-ব্যাক শপিং পোর্টাল: বিনিয়োগ-উপদেষ্টারা বলছেন, খুব সাধারণ অনলাইন শপিংয়ের মাধ্যমে অনেকটা সঞ্চয় সম্ভব। ক্যাশ-ব্যাক শপিং পোর্টাল ব্যবহার করুন। যার মাধ্যমে আপনি বিভিন্ন কেনাকাটায় অনেকটাই সঞ্চয় করতে পারবেন। একাধিক ক্যাশ-ব্যাক শপিং পোর্টালে সাইন আপ করুন।

টাকা বেরিয়ে যাওয়া আটকান: যে কোনও কেনাকাটার আগে নিজেকে প্রশ্ন করুন, আদৌ কি আপনার সেটা প্রয়োজন আছে। এ ব্যাপারে নিজের কাছে সৎ থাকুন। তাতে দেখবেন অনেক অকারণ অপচয় ঠেকানো যাবে।

করুন মিল-প্ল্যান: অতিরিক্ত খরচ করে ফেলি অনেক সময়ই আমরা রেস্তোরাঁয় খেয়ে বা ডেলিভারির খাবার খেয়ে। প্রতি মাসে এধরনের খরচে রাশ টানতে হবে।

তৈরি করে নিন প্রয়োজনীয় কেনাকাটার তালিকা: আপনার কী কী জিনিস প্রয়োজন তার একটা পূর্ণাঙ্গ তালিকা তৈরি করে নিন। সেগুলির দাম কত, কোন ব্রান্ড প্রয়োজন- এব্যাপারে আগে থাকতে পরিকল্পনা করে নিন। তাতে খরচের ব্যাপারে আগাম ধারণা তৈরি হয়ে যাবে।