ক্রিপ্টোকারেন্সি দিয়ে কীভাবে লাভবান হবেন? জেনে নিন কিছু গুরুত্বপূর্ণ টিপস

11
ক্রিপ্টোকারেন্সি দিয়ে কীভাবে লাভবান হবেন? জেনে নিন কিছু গুরুত্বপূর্ণ টিপস

বিনিয়োগের জগতে নতুন দিগন্ত খুলে দিয়েছে ক্রিপ্টোকারেন্সি। বিনিয়োগকারীদের বেশ ভালো লাভ দিচ্ছে ক্রিপ্টোকারেন্সি। ক্রিপ্টোকারেন্সির দৌলতে অনেকেই বেশ ভালোরকম অর্থ জমিয়ে ফেলেছেন বলে জানা গিয়েছে। অনেকেই তাই বর্তমানে ক্রিপ্টোকারেন্সিতে বিনিয়োগ করার কথা ভাবছেন। ক্রিপ্টোকারেন্সি নিয়ে আলোচনা থেকে অনেকেই এক্ষেত্রে বিনিয়োগের প্রতি উৎসাহ দেখিয়েছেন। ক্রিপ্টোকারেন্সি বিষয়টি এই পর্যন্ত প্রাথমিক পর্যায়ে রয়েছে।

ক্রিপ্টোকারেন্সির দর বাজারের উপর নির্ভর করে। বাজার ভালো থাকলে বেশ ভালোরকম লাভবান হন। তবে অনেকেই আবার এক্ষেত্রে লোকসানের সম্মুখীন হয়েছেন। যে কারণে ক্রিপ্টোকারেন্সির বাজার ছেড়ে চলে যাচ্ছেন তারা। তাই ক্রিপ্টোকারেন্সিতে বিনিয়োগ করতে হলে কিছু বিষয় মাথায় রাখা প্রয়োজন। এক্ষেত্রে প্রথমেই যেটা মাথায় রাখতে হবে তাহলে বিনিয়োগগত কৌশল। মনে রাখতে হবে বিটকয়েন এবং ইথেরিয়ামের মতো কয়েনগুলি স্বল্প সময়ের জন্য অস্থির হলেও দীর্ঘমেয়াদের জন্য লাভজনক।

বিশ্লেষণাত্মক এবং প্রযুক্তিগত দক্ষতা থাকলে বিনিয়োগ করতে খুব বেশি বেগ পেতে হবে না। মূল্য বৃদ্ধি এবং হ্রাস সম্পর্কে সঠিক পূর্বাভাস দেওয়ার জন্য অবশ্যই টেকনিক্যাল চার্ট বিশ্লেষণ করতে হবে। দাম কখন বাড়বে অথবা কমবে তা বুঝে নিতে পারলে লাভ হবে। একই সঙ্গে অবশ্যই স্টেকিং এর বিষয়টিও বুঝে নিতে হবে। এই কয়েনগুলি আসলে ক্রিপ্টো ওয়ালেটে লক করা থাকে। প্রুফ অফ স্টেক ব্লকচেইন নেটওয়ার্ক ব্যবহার করা এক্ষেত্রে আদর্শগত পদ্ধতি।

ক্রিপ্টোকারেন্সি মাইনিং করলে নতুন কয়েন পুরস্কার হিসেবে পাবেন। মাইনিং এর বিষয়টি বোঝার জন্য প্রযুক্তির উপর বিশেষ দক্ষতা থাকা প্রয়োজন। এর জন্য অবশ্যই কোডিং ব্যাকগ্রাউন্ড এবং কম্পিউটারে দক্ষতা থাকতে হবে। সচেতনতা বাড়াতে বিনামূল্যে টোকেন বিতরণ করার জন্য রয়েছে এয়ারড্রপ সিস্টেম। এই টোকেনের মাধ্যমে আপনি ক্রিপ্টোকারেন্সি কিনতে পারবেন। সেগুলির লেনদেন করতে পারবেন।