পালস অক্সিমিটার দিয়ে কিভাবে শরীরের অক্সিজেনের মাত্রা দেখবেন? জেনে নিন চিকিৎসকের পরামর্শ

18
পালস অক্সিমিটার দিয়ে কিভাবে শরীরের অক্সিজেনের মাত্রা দেখবেন? জেনে নিন চিকিৎসকের পরামর্শ

করোনার কারণে রোগীর শরীরে অক্সিজেনের অভাব দেখা দেয়। একেবারে অ্যাডভান্স স্টেজে পৌঁছে গেলে রোগী তীব্র শ্বাসকষ্টে ভুগতে থাকেন। এক্ষেত্রে শরীরের অক্সিজেনের মাত্রা সর্বদা নজরে রাখার পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসকরা। তাই বাড়িতে সর্বদাই পালস অক্সিমিটার যন্ত্রটি রাখার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। এই যন্ত্রের সাহায্যে রোগীর শরীরের অক্সিজেনের মাত্রা চেক করা যায়।

এই যন্ত্র ব্যবহার করার কিছু নির্দিষ্ট নিয়ম রয়েছে। যন্ত্রটি ব্যবহার করার আগে প্রথমেই রোগীর হাতে যদি নেলপালিশ থাকে তাহলে তা মুছে ফেলতে হবে। হাতের আঙ্গুল যদি ঠাণ্ডা মনে হয় তাহলে তা কিছুক্ষণ ঘষে একটু উষ্ণ করে নিতে হবে। পালস অক্সিমিটারে অক্সিজেনের মাত্রা চেক করার আগে কিছুক্ষণ বিশ্রাম করতে হবে।

এরপর অক্সিমিটারের সুইচ অন করে সেটিকে আঙুলের ডগায় রাখতে হবে। অক্সি মিটারের রিডিং প্রথমে কিছুক্ষণ নড়াচড়া করবে। রিডিং যতক্ষণ না স্থির হচ্ছে, ততক্ষণ অপেক্ষা করতে হবে। রিডিং যদি অন্তত পাঁচ সেকেন্ড পর্যন্ত স্থির থাকে তাহলে সেই মানটিকেই সর্বোচ্চ বলে ধরে নিতে হবে। বেসলাইন থেকে রেকর্ড নিতে হবে। দিনে অন্তত তিনবার চেক করতে হবে।

রক্তে অক্সিজেনের পরিমাণ যদি ঠিক না থাকে তাহলে ৪-৫টি বালিশ মাথায় রেখে পেটের উপর ভর দিয়ে শোয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। খেয়াল রাখতে হবে রক্তে অক্সিজেনের পরিমাণ যেন ৯৪ শতাংশের নিচে না নেমে যায়। এমনটা হলে রোগীকে সত্বর হাসপাতালে নিয়ে যেতে হবে।