কীভাবে বুঝবেন ফ্যাটি লিভারে আক্রান্ত হচ্ছেন আপনি? জেনে নিয়ে সতর্ক হন

24
কীভাবে বুঝবেন ফ্যাটি লিভারে আক্রান্ত হচ্ছেন আপনি? জেনে নিয়ে সতর্ক হন

দৈনন্দিন ইঁদুর দৌড়ে সামিল হতে গিয়ে অস্বাস্থ্যকর জীবনযাপনে একপ্রকার বাধ্য হন সাধারণ মানুষ। ফলস্বরূপ দীর্ঘমেয়াদী রোগবালাইয়ের কবলে পড়ে যান খুব কম বয়সেই। এই রোগ বালাইয়ের মধ্যে অন্যতম হলো ফ্যাটি লিভার। এই রোগের প্রভাবে পেটের মেদ তথা ভুঁড়ি অনিয়ন্ত্রিতভাবে বাড়তে থাকে। প্রথমদিকে প্রতিকার না করা হলে পরবর্তী ক্ষেত্রে এই ফ্যাটি লিভার থেকেই ভয়ঙ্কর রোগের সম্মুখীন হতে পারেন আপনি!

স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, ফ্যাটি লিভারের সমস্যার সমাধান না করা হলে ভবিষ্যতে জন্ডিস রোগ হওয়ার প্রবল সম্ভাবনা থাকে। কিভাবে বুঝবেন আপনার এই সমস্যা আছে কিনা? আপনি কি সারাদিন অতিরিক্ত ক্লান্তিবোধ করেন? অল্প পরিশ্রমেই হাঁপিয়ে ওঠেন? তাহলে এখনি সাবধান হোন। কারণ এই লক্ষণগুলি ফ্যাটি লিভারের প্রাথমিক লক্ষণ।

আপনার শরীরে এই সমস্যা থাকলে এখনই চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। তবে যদি ঘরোয়া টোটকা নিতে চান তাহলে সেই উপায়ও রয়েছে। এর জন্য আপনাকে প্রতিদিন সকালে ঘুম থেকে উঠেই এক গ্লাস উষ্ণ জলে লেবু এবং মধু মিশিয়ে খেতে হবে। লেবুর মধ্যে থাকে ভিটামিন সি এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। লেবু এবং মধুর এই মিশ্রণ লিভারে একপ্রকার উপকারী এনজাইম তৈরি করবে যা লিভারের ফ্যাট গলাতে সাহায্য করে।

এছাড়াও এক গ্লাস জলে এক চামচ অ্যাপেল সাইডার ভিনিগার মিশিয়ে তার মধ্যে একটু মধু মিশিয়ে নিয়ে দুপুরে এবং রাতে খাবার আগে নিয়মিত খেতে পারেন। এই দুটি ঘরোয়া টোটকা একমাস ব্যবহার করলেই ফ্যাটি লিভারের সমস্যা অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে চলে আসবে। তবে খুব বেশি সমস্যা দেখা দিলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিতেই হবে। কারণ সুস্থ থাকতে গেলে চাই সুস্থ লিভার।