অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ হয়ে গেল দার্জিলিংয়ের হোটেল, বার, রেস্তোরাঁ

7
অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ হয়ে গেল দার্জিলিংয়ের হোটেল, বার, রেস্তোরাঁ

ক্রমেই শক্তি বাড়াচ্ছে করোনা। দৈনিক সংক্রমণ দ্রুগতিতে বেড়ে চলেছে। সারা দেশের পাশাপাশি পশ্চিমবঙ্গের পরিস্থিতিও ভয়াবহ হয়ে উঠছে। দেশের দৈনিক সংক্রমণ প্রায় পৌনে তিন লাখের কাছাকাছি পৌঁছে গিয়েছে। করোনার এমন দ্রুত শক্তি বৃদ্ধিতে প্রশাসনের উদ্বেগ বেড়েছে। দেশের বিভিন্ন প্রান্তে লকডাউন কারফিউ জারি করা হচ্ছে।

পশ্চিমবঙ্গের অবশ্য এখন এই লকডাউন জারি করা হচ্ছে না। গতকাল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এমনটাই জানিয়েছেন। তবে করোনার ঊর্ধ্বগতির কথা মাথায় রেখে দার্জিলিংয়ের পর্যটন শিল্প আপাতত বন্ধ থাকছে। পাহাড় প্রেমীরা এখন আর শৈলশহরে যেতে পারবেন না। করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে না আসা পর্যন্ত পাহাড় বন্ধ থাকছে।

গতকাল থেকেই দার্জিলিংয়ের হোটেল, বার, রেস্তোরাঁ অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ হয়ে গেল। সোমবার জিটিএর তরফ থেকে এই নির্দেশ জারি করা হয়েছে। দার্জিলিঙে পর্যটকদের আসতে নিষেধ করা হয়েছে। প্রসঙ্গত গতবছর করোনার জন্য দীর্ঘ প্রায় সাড়ে ছয় মাসের বেশি সময় ধরে পাহাড় বন্ধ ছিল। দূর্গা পূজার পরেও করোনা আতঙ্কে ছিল পাহাড়।

বিগত এক বছর ধরে পাহাড়ের পর্যটন শিল্প ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। দুর্গাপুজোর পরেও পাহাড়ের ছন্দে ফিরতে বেশ কিছুদিন সময় লেগেছিল। এখন করোনার জন্য আবার বন্ধ হয়ে গেল পাহাড়।