আবারও উত্তপ্ত ত্রিপুরা! আক্রান্ত তৃণমূলের দুই মহিলা সাংসদ

14
আবারও উত্তপ্ত ত্রিপুরা! আক্রান্ত তৃণমূলের দুই মহিলা সাংসদ

রাজনৈতিক সংঘর্ষে ফের উত্তপ্ত ত্রিপুরা। সাবলুম নন্দীগ্রাম এলাকায় জাতীয় পতাকা উত্তোলনের পর একদল দুষ্কৃতী তৃণমূল সাংসদ ও নেতা-কর্মীদের ঘিরে ধরে তাদের উপর আক্রমণ চালায় বলে অভিযোগ উঠেছে। এলোপাথাড়িভাবে মারা হয় তাদের। এই ঘটনায় তৃণমূলের তরফে দুইজন মহিলা সাংসদ আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। এই হামলার ঘটনায় তৃণমূল সাংসদ দোলা সেনের আপ্ত সহায়কের মাথা ফেটেছে বলে অভিযোগ রাজ্য শাসকদলের।

শুধু তাই নয়, তৃণমূলের তরফের আরেক সাংসদ অপরূপা পোদ্দারের ব্যাগ, ফোন ছিনতাই করা হয়েছে বলেও অভিযোগ উঠেছে। আহত হয়েছেন দোলা সেন নিজেও। এছাড়াও সাংসদদের গাড়ি ভাঙচুর করা হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। ঘটনার পর এখনো পর্যন্ত পুলিশের কাছে অভিযোগ জানানো হয়নি বলেই জানা গিয়েছে।

দোলা সেন জানিয়েছেন, থাইভূমে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করে দলীয় কার্যালয় উদ্বোধন করছিলেন তারা। আচমকাই তাদের ঘিরে ফেলে একদল দুষ্কৃতী। বিজেপি আশ্রিত প্রায় ২০০ দুষ্কৃতী তাদের ঘিরে ধরে হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগ তৃণমূলের। আপাতত থাইভূমেই আটকে রয়েছেন তারা। আগরতলায় থাকা অন্যান্য তৃণমূল সাংসদের তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করছেন।

ত্রিপুরায় তৃণমূলের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা মলয় ঘটক দাবি করেছেন, বিজেপি তৃণমূলের অভ্যুত্থানে ভয় পাচ্ছে। তৃণমূলের নেতাকর্মীরা যাতে ময়দানে নামতে না পারেন তার জন্যই কার্যত তাদের উপর হামলা চালানো হচ্ছে। তবে বিজেপি অবশ্য এই দায়ভার সম্পূর্ণ অস্বীকার করছে। তাদের পাল্টা দাবি, প্রচারের আলোয় আসার উদ্দেশ্যেই এমন নাটক করছে তৃণমূল।