কম দামে বাড়িতেই পাওয়া যাচ্ছে ইলিশ! সংশয় গ্রাহকদের

17
কম দামে বাড়িতেই পাওয়া যাচ্ছে ইলিশ! সংশয় গ্রাহকদের

যেখানে প্রত্যেক ইলিশ মাছের দাম হওয়া উচিত ৪০০ থেকে ৫০০ টাকা, সেখানে ইলিশ মাছ বিক্রি করা হচ্ছে ২০০ টাকা কিলো দরে। তবে চমকে যাওয়ার কিছু নেই। গোটা মাছ বিক্রি হচ্ছে না। রীতিমতো পিস করে কেটে রাস্তায় ঘুরে ঘুরে বিক্রি করা হচ্ছে এই রুপালি শস্য। বাংলাদেশের বাগেরহাট শহরের কেটে পিস করে বিক্রি করা হচ্ছে ইলিশ মাছ, তাও আবার ২০০ টাকা কেজি দরে।

একে দাম কম, তার ওপরই বাড়ির সামনেই পেয়ে যাওয়া ইলিশ মাছ কেউ ছেড়ে দেয় না, ঘরে গিয়ে কাটার ঝামেলাও নেই। তবে কেটে রাখা মাছ কিনে রান্না করে খাওয়ার স্বাস্থ্য সম্মত কিনা তা পরীক্ষা করে দেখার দাবি জানিয়েছেন অনেক মানুষ। বাগেরহাট রেল রোডের কাছে একটি অটোরিকশায় মাইকিং করে বিক্রি করা হচ্ছে ইলিশ মাছ। দামকম দেখে স্বাভাবিকভাবেই অনেকেই আগ্রহী হয়ে সেগুলি কিনতে যাচ্ছেন। কিন্তু এত কম দাম যেহেতু, তাই ইলিশ মাছের মধ্যে কোন সমস্যা রয়েছে কিনা তাও খতিয়ে দেখার অনুরোধ জানিয়েছেন বহু মানুষ।

খুলনার একটি কোম্পানির কাছ থেকে আনা হচ্ছে এই মাছ, এমনটাই দাবি জানিয়েছেন বিক্রেতারা। এই ভাবেই তারা বিক্রি করে আসছেন। অন্যদিকে ক্রেতাদের মত অনুযায়ী, যে মাছ বাজারে গেলে ৪০০ থেকে ৫০০টাকা কিনতে লাগে, সেটি বাড়িতে বসে পাওয়া যাচ্ছে ২০০ টাকা দিয়ে। ভেজাল সব জায়গাতেই রয়েছে। এক দিন ইলিশ মাছ খেলে কিছুই হবে না।

তবে অনেকেই মনে করছেন যে, নিম্নমানের মাছ বিক্রি করার জন্য এই সংস্থা বাড়ি বাড়ি গিয়ে মাছ বিক্রি করছে। কনজিউমার অ্যাসোসিয়েশন অফ বাংলাদেশ, বাগেরহাটের সভাপতি বাবুল সরদার জানিয়েছেন যে, বর্তমান বাজার দর অনুযায়ী এত কম দামে ইলিশ মাছ বিক্রির কোন প্রশ্ন ওঠেনা। কিভাবে এত কম দামি মাছ বিক্রি হচ্ছে তা খতিয়ে দেখা হবে। এই বিষয়ে প্রশাসন এবং কর্তৃপক্ষকে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে।