আর্থিক বিনিয়োগের আগে জেনে নিন কিছু কথা যা প্রতারণার হাত থেকে বাঁচাবে আপনাকে

9
আর্থিক বিনিয়োগের আগে জেনে নিন কিছু কথা যা প্রতারণার হাত থেকে বাঁচাবে আপনাকে

আর্থিক বিনিয়োগে কী ভাবে প্রতারণার সম্ভাবনা থাকে, জেনে নিয়ে সতর্ক হয়ে যান আপনি। প্রত্যেককে অনেক কষ্ট করে অর্থ উপার্জন করতে হয়। প্রত্যেকের উচিত অত্যন্ত সচেতন থাকা।

কিন্তু কিছু প্রলোভনে পা দিয়ে তাঁরা প্রতারণার শিকার হন। ফলে নিজের কষ্ট করে রোজগার করা টাকা হারাতে হয়। কিছু অসাধু ব্যবসাদার মিথ্যা আশ্বাস দিয়ে প্রতারণা করেন।

যাঁরা প্রতারণা করেন, তাঁরা মানুষের ছোট কোনও সমস্যায় পাশে দাঁড়ান। এবং সেই সমস্যা সমাধান করে দিয়ে নিজের কোনও স্বার্থ চরিতার্থ করেন। তাঁদের দয়া বা পাশে থাকার মানসিকতা দেখে অনেকেই অন্ধ বিশ্বাস করে নেন। যার ফলে প্রতারিত হতে হয়।

অনেকেই আছেন যাঁরা অন্যদের দেখে নিজের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেন। অন্যরা হয় তো বেশি মুনাফার জন্য কোথাও বিনিয়োগ করেছেন। তাঁকে দেখে অনেকে সেই জাতীয় বিভিন্ন বিনিয়োগের দিকে হাঁটেন। সেক্ষেত্রে প্রতারিত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

যাঁরা প্রতারক হন তাঁরা সাধারণ মানুষের কাছে একটি লক্ষ্য স্থির করে দেন। এমন ভাবে বোঝান যাতে করে সেই লক্ষ্যে না পৌঁছলে বিনিয়োগ করা ব্যর্থ। কিন্তু সেটাই হয় তো প্রতারণার জাল। সেই জালে প্রতারকরা এমন ভাবে ফাঁসাতে চায় যাতে করে সেখান থেকে কেউ বেরিয়ে আসতে না পারে।

বিনিয়োগের আগে যে যে বিষয়গুলি মাথায় রাখা উচিত সেগুলি হল; কোথায় বিনিয়োগ করা হচ্ছে। যেখানে বিনিয়োগ করা হচ্ছে সেখানে কোনও সরকারের কোনও নিয়ন্ত্রণ রয়েছে কি না। কারা সেই অংশটি চালাচ্ছে। বিনিয়োগের আগে সেই সংস্থা সম্পর্কে যাবতীয় তথ্য জানা দরকার। প্রয়োজনে অভিজ্ঞ কারও সঙ্গে এবিষয়ে আলোচনা করা দরকার৷

তবে প্রত্যেকেই চান যে তাঁদের সামনে যেন একটা বিরাট আর্থিক সুযোগ আসে। এবং সেই সুযোগ হাতিয়ার করে লাভবান হতে চান প্রত্যেকে। আর সেখানেই ফাঁদ পেতে রাখে প্রতারকরা। একসঙ্গে প্রচুর টাকা লাভের আশায় সেই ফাঁদে পা-ও দিয়ে দেন অনেকে।