মাথার খুশকি দূর করতে দেখে নিন কিছু ঘরোয়া টিপস

24
মাথার খুশকি দূর করতে দেখে নিন কিছু ঘরোয়া টিপস

ধরুন আপনি কোথাও বন্ধুদের সাথে বেড়াতে গেছেন সেখানে আপনি পড়েছেন কালো রঙের ড্রেস। তার কিছুক্ষণ পরই আপনি দেখতে পেলেন যে আপনার কাঁধে সাদা খুশকি তে ভর্তি হয়ে গেছে। তখন সবারই সামনে আপনার প্রেস্টিজ নষ্ট হয়ে যাবে। আপনার চুলে বাসা বেঁধেছে খুশকি। এই সমস্যায় অনেকেই ভুগে থাকেন।

বিশেষত শীতকালে খুশকির উপদ্রব বাড়ে। শীতের আবহাওয়ায় আদ্রতা কম থাকে তাই এই সময় আমাদের মাথাতে বেশ মজা করে জাঁকিয়ে বসে খুশকি। মাথার স্ক্যাল্পে ফাংগাল ইনফেকশন, অপরিষ্কার স্ক্যাল্প, শ্যাম্পু লাগিয়ে ভালো করে না ধোয়া, তৈলাক্ত স্ক্যাল্পে ধুলোবালি জমে যাওয়ার কারনেও খুশকি হয়। খুশকি হল দু ধরনের– শুষ্ক খুশকি ও তৈলাক্ত খুশকি! আমাদের বাড়ীতে তৈরি কিছু উপকরণে দ্বারা খুশকি দূর করা যায়।

একটি পাকা কলাকে অর্ধেক করে। সেই অর্ধেক পাকা কলা কে চটকে তাতে এক টেবিল চামচ মধু ও সমপরিমানে পাতি লেবুর রস মিশিয়ে। ভালো করে চুলের গোড়াতে লাগিয়ে নিন। কুড়ি মিনিট রেখে তারপর মাথাটি ভালো করে শ্যাম্পু করে ধুয়ে নিন। ৪,৫ টি লেবুর খোসা ছাড়িয়ে সেগুলিকে গরম জলে কুড়ি মিনিট ফোটান। তারপর খোলাখুলি কে ঠান্ডা করে নিয়ে মিক্সিতে পেস্ট তৈরি করুন। ওই পেজটিকে ভালো করে মাথায় লাগিয়ে ৩০ মিনিট শুকোতে দিন। তারপর মাথাটি ভালো করে শ্যাম্পু করে ধুয়ে ফেলুন। দেখুন এভাবে কিছুদিন করার পর খুশকি দূর হয়ে যাবে।

মাথায় শ্যাম্পু করার ৩০ মিনিট আগে একটু ভিনিগার নিয়ে ভালো করে মাথা ম্যাসেজ করুন। মাথার স্কাল্পে কখনো নোংরা জমতে দেবেন না এই নোংরা থেকেই জন্ম নেয় খুশকির। শসা এবং আদার রস একসঙ্গে মিশ্রন করে মাথায় মাখুন এতে খুশকি চলে যাবে। চুল আঁচড়ানোর সময় পরিষ্কার চিরুনি ব্যবহার করুন। অন্যের চিরুনি কখনোই ব্যবহার করবেন না। আর গরম জল দিয়ে কখনো চুল ধোবেন না।