থানার মধ্যেই গায়ে হাত তোলা হয়েছে, জুতো ছুঁড়ে মারাও হয়েছে! অভিযোগ পায়েলের

12
থানার মধ্যেই গায়ে হাত তোলা হয়েছে, জুতো ছুঁড়ে মারাও হয়েছে! অভিযোগ পায়েলের

একুশের বিধানসভা নির্বাচন উপলক্ষে রাজ্য রাজনীতি এমনিতেই উত্তাল। তার উপর আবার আজ বেহালা পূর্বে বিজেপির তরফের প্রার্থী পায়েল সরকারের মিছিলের উপর তৃণমূল কর্মীদের আক্রমণকে কেন্দ্র করে রাজ্য রাজনীতির পারদ আরো একদফা চড়লো। রবিবার সকালে পায়েল সরকার বিজেপি কর্মী সমর্থকদের নিয়ে একটি মিছিল বের করলে ঠাকুরপুকুর থানার অন্তর্গত একটি চেকপোষ্টে তার মিছিলের উপর হামলা চালানো হয়।

পায়েলের অভিযোগ, এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে থানায় অভিযোগ দায়ের করতে গিয়েছিলেন তিনি। তবে থানাতেও আক্রান্ত হতে হয়েছে তাকে। থানার মধ্যেই তার গায়ে হাত তোলা হয়েছে। তাকে লক্ষ্য করে জুতো ছুঁড়ে মারাও হয়েছে। গালিগালাজ করা হয়েছে তাকে। তৃণমূলের কর্মী সমর্থকদের বিরুদ্ধে এমনই সব গুরুতর অভিযোগ তুলেছেন বিজেপি প্রার্থী পায়েল সরকার।

পায়েলের অভিযোগ, এদিন সকাল এগারোটা নাগাদ তিনি প্রচারের জন্য মিছিল বের করলে তৃনমূলের কর্মী-সমর্থকরা তার কনভয়ের উপর হামলা চালায়। এই হামলার দরুন বিজেপি কর্মী সমর্থকদের মধ্যে অনেকেই আক্রান্ত হয়েছেন। এর প্রতিবাদ করলে বিজেপি কর্মী সমর্থকদের মারধর করে তৃণমূল।

এরপর উভয় পক্ষই ঠাকুরপুকুর থানায় অভিযোগ দায়ের করে। তৃণমূল এবং বিজেপির কর্মী-সমর্থকেরা দীর্ঘক্ষণ থানা ঘেরাও করে রাখেন। উত্তেজনার জেরে থানায় উপস্থিত হন বিজেপি প্রার্থী পায়েল সরকার এবং তার প্রতিপক্ষ তৃণমূল প্রার্থী রত্না চট্টোপাধ্যায়। পায়েলের অভিযোগ থানার মধ্যেও তার গায়ে হাত তোলা হয়েছে। ওয়াই ক্যাটাগরির নিরাপত্তাপ্রাপ্ত বিজেপি প্রার্থী পায়েল সরকার থানার মধ্যে কিভাবে আক্রান্ত হলেন, সে সম্পর্কে উঠছে প্রশ্ন।