তীব্র ভূমিকম্পে কেঁপে উঠলো হাইতি! প্রচুর ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা

11
তীব্র ভূমিকম্পে কেঁপে উঠলো হাইতি! প্রচুর ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা

শক্তিশালী ভূমিকম্পে আরো একবার কেঁপে উঠল হাইতি। ন্যাশনাল সেন্টার অফ সিস্মলোজি জানিয়েছেন, আজ যে ভূমিকম্প হয়েছে হাইতিতে, তার তীব্রতা ছিল মারাত্মক। ভূমিকম্পের তীব্রতা জন্য বেশ কয়েকটি বিল্ডিং ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে যায়। ভারতীয় সময় অনুযায়ী বিকেল ৫ টা ৫৯ মিনিটে এই কম্পন অনুভূত হয়েছিল। সেন্ট্রাল বোর্ড অফ পৃন্স এলাকা থেকে প্রায় দেড়শ কিলোমিটার দূরে এই কম্পন অনুভূত হয়েছিল।

হাইতি ছাড়াও প্রতিবেশী দেশগুলোতে এই কম্পন অনুভূতি হয় ভীষণভাবে। কম্পনের জন্য সুনামি সর্তকতা জারি করা হয়। প্রত্যক্ষদর্শীদের মতে, ভূমিকম্পের জন্য হাইতিতে দক্ষিণ পশ্চিম উপদ্বীপে স্কুল এবং বাড়িঘর ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে যায়। হাইতির নাগরিকরা সোশ্যাল মিডিয়ায় বিল্ডিং এর ধ্বংসাবশেষের ছবি শেয়ার করে। এমনকি একটি গির্জা ভূমিকম্পের জেরে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

হাইতির সিভিল কন্টাকটার এর ডিরেক্টর জেরি চ্যান্ডলার সংবাদসংস্থাকে জানিয়েছেন, এখনো পর্যন্ত যদিও কোনো সঠিক তথ্য নেই তবু আমরা মনে করছি এই ভূমিকম্পের জন্য মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে হাইতিতে। ইতিমধ্যে দেশের ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টারগুলো কাজ করতে শুরু করেছে। প্রধানমন্ত্রী এরিয়েল হেনরি সমস্ত বিষয়টি দেখছেন।

১১ বছর আগে অর্থাৎ ২০১০ সালের জানুয়ারিতে একটি ভূমিকম্প হয় যা রিকটার স্কেলে ছিল ৭.০। সেই কোম্পানির পোর্ট-অ-প্রিন্স এবং আশেপাশের একাধিক শহর ধুলিস্যাৎ হয়ে গিয়েছিল। মৃত্যু হয়েছিল প্রায় দুই লাখের বেশি মানুষের।