গুজরাটের বাসিন্দা ভরত সিং বিশ্বের সবথেকে বড় মোটরবাইক বানিয়ে গ্রিনিজ বুকে নাম তুলে ফেললেন

6
গুজরাটের বাসিন্দা ভরত সিং বিশ্বের সবথেকে বড় মোটরবাইক বানিয়ে গ্রিনিজ বুকে নাম তুলে ফেললেন

বিশ্বের সবথেকে বড় মোটরবাইক বানিয়ে গ্রিনিজ বুকে নাম তুলে ফেললেন‌ গুজরাটের বাসিন্দা ভরত সিং পারমার। তিনি যে আশ্চর্য বাইক বানিয়েছেন তা দৈর্ঘ্যে প্রায় ৮৬ ফুট। তিনি একটি সাধারণ ১২৫ সিসি বাজাজ ডিসকভার বাইকের উপর কাজ করেছেন। এই বাইকটিকেই তিনি তার অসাধারণ সৃজনশীল মানসিকতার জোরে লম্বায় বিশ্বের সবথেকে বড় বাইক করে তুলেছেন। বাইক নিয়ে এতদিন অনেকে অনেক রকমের কেরামতি দেখিয়েছেন। তবে ভরত সিংয়ের কেরামতি গ্রিনিজ বুকে স্বীকৃতি পেল।

আপামর জনসাধারণের কাছে বাইক একটি অত্যন্ত দুর্বলতার জিনিস। কেউ কেউ তার সারা জীবনের সঞ্চয় ব্যয় করে নতুন গাড়ি কেনেন। তবে ভরত সিং পারমার বুদ্ধি খাটিয়ে নিজের সাধারণ বাইকটিকে অসাধারণত্বের পর্যায়ে নিয়ে গেছেন। এজন্য তাকে বাইকের পেছনের চাকাটি খুলতে হয়েছে। এরপর লম্বা চেইন ড্রাইভ সিস্টেমের মাধ্যমে তিনি বানিয়ে ফেলেছেন ২৬.২৯ মিটার অথবা ৮৬ ফুট লম্বা এই অসাধারণ বাইক।

আবিষ্কর্তা জানিয়েছেন, তার এই আবিষ্কার দীর্ঘদিনের সাধনার ফল। তার এই পরিকল্পনা বাস্তবায়িত করতে তাকে এতদিন অসংখ্য বাধা-বিপত্তির সম্মুখীন হতে হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি। তবে সব বাধা কাটিয়ে বর্তমানে বিশ্বের সবথেকে বড় বাইকের মালিক গুজরাটের ভরত সিং পারমার। তবে তার এই আবিষ্কার কিন্তু এখানেই থেমে থাকবে না। এরপর বাইকটিকে একই পদ্ধতিতে ১০০ ফুট লম্বা বানাতে চান তিনি।

এই বাইকটিকে সম্ভবত কোনোদিনই রাস্তায় চালানো সম্ভব নয়। তবে তাতে আক্ষেপ নেই আবিষ্কর্তার। তার আবিষ্কারটি ইতিমধ্যেই গ্রিনিজ বুকে নাম তুলে ফেলেছে যে! এর সাথেই তার সমস্ত আশা পূরণ হয়েছে এবং দীর্ঘদিনের পরিশ্রমের উপযুক্ত ফলও পেয়েছেন তিনি। ইতিহাসের পাতায় তারই আবিষ্কারটি চিরকাল থেকে যাবে, এটা ভেবেই গর্বিত তিনি।