ইন্ডাস্ট্রিতে ঈর্ষা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ গোবিন্দার

8
ইন্ডাস্ট্রিতে ঈর্ষা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ গোবিন্দার

আশি থেকে নব্বই দশকের মধ্যে যে কজন বলিউডে সুপারস্টার ছিলেন বা আছেন তাদের মধ্যে কমেডি কিং কে ছিল বললে যাঁর নাম সবার আগে মনে পড়ে তা হলো গোবিন্দা। একটা সময় তিনি দাপিয়ে বেড়িয়েছেন তাঁর নাচ অভিনয় ও কমেডি দিয়ে। তাঁর মুভি মানেই সেটা খুব মজার হবে ভেবে আজও টিভির সামনে বসে পড়েন ছোটো থেকে বড়রা। সেই সময় আরও অনেক তারকা ছিলেন যারা কমেডি ঘরানার ছবি করতে চেয়েছিলেন কিন্তু প্রত্যেক চলচ্চিত্র নির্মাতার প্রথম পছন্দ ছিলেন গোবিন্দ। গোবিন্দ প্রায় তিন দশক ধরে হিন্দি সিনেমা করেছেন এবং প্রায় ১৬৫টি ছবিতে অভিনয় করেছেন।

কিন্তু একটা সময়ের পর থেকে তাঁকে অতটা আর সিনেমা করতে দেখা যায়নি। কেনো আর করেন নি সিনেমা আসুন জেনে নেওয়া যাক।

বলিউডের ভিতরের সূত্র মারফত জানা যায় যে, গোবিন্দা জনপ্রিয়তার শিখরে পৌঁছে তাঁর মধ্যে অহংকার দেখা দেয়। যেকোনো শুটিং – এ নিজের ইচ্ছে মত সময়ে পৌঁছনো শুরু করে। যে রোল টা দেওয়া হতো সেটা না করে অন্য রোল চাইতেন এরকম অনেক কথাই শোনা যায় তাঁর নামে। আর মনে করা হয় এই কারণ গুলোর জন্যই প্রযোজকরা তাঁকে পরে আর নিতে চাইতেন না। এছাড়াও আরো একটি খবর জানা যায় যে, সালমানের সাথে গোবিন্দর ভালো বন্ধুত্ব ছিল। কিন্তু গোবিন্দর মেয়ে ” টিনা আহুজা”কে বলিউডে লঞ্চ করতে চেয়ে সালমানের সাহায্য চেয়েছিলেন গোবিন্দা। কিন্তু তাকে কোনোভাবেই সাহায্য করেননি সালমান খান আর তাতেই দুজনের মধ্যে সম্পর্কে ফাটল ধরে ও সম্পর্কের অবনতি হয়।

তবে এর সাথে রাজনীতির নানান কারণের জন্য তার ক্যারিয়ারে প্রভাব পরে। তিনি এক সাক্ষাৎকারে ক্ষোভ প্রকাশ করে জানান যে “ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে ঈর্ষার কারণে লোকেরা প্রায়শই তাকে নিয়ে মিথ্যা গুজব ছড়ায়”। যার কারণে তার ক্যারিয়ার নষ্ট হয়ে গেছে।