রাজ্য সরকার কে সংবিধান মেনে চলার লাস্ট ওয়ার্নিং দিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়

12
রাজ্য সরকার কে সংবিধান মেনে চলার লাস্ট ওয়ার্নিং দিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়

“সংবিধান মেনে চলুন, এটা আমার লাস্ট ওয়ার্নিং!” সম্প্রতি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রতি এমনই কড়া মন্তব্য পেশ করলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। এ রাজ্যে রাজ্য সরকার এবং রাজ্যপালের দন্দ্ব নতুন কিছু নয়। প্রায় দিনই বিভিন্ন বিষয় নিয়ে একে অপরের বিরুদ্ধে সরব হন মুখ্যমন্ত্রী এবং রাজ্যপাল। মুখ্যমন্ত্রীর প্রতি শাসকদলের বরাবরের অভিযোগ, এ রাজ্যের আইন শৃঙ্খলা রক্ষা করতে রীতিমতো ব্যর্থ মমতা সরকার।

এর আগেও বহুবার রাজ্যপাল রাজ্যের আইন শৃঙ্খলা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন। রবিবার রাতে রাজ্য সরকারের প্রতি আবারও সাবধান বাণী দিলেন রাজ্যপাল। উল্লেখ্য, গত ২৭শে সেপ্টেম্বর পটাশপুর থানার পুলিশ বিজেপি কর্মী মদন ঘোড়ুইকে গ্রেফতার করে। পুলিশি হেফাজতেই অসুস্থ হয়ে মৃত্যু হয় তার। এই ঘটনায় উত্তাল হয়ে ওঠে বিজেপির অন্দরমহল। রবিবার সন্ধে ৭টা নাগাদ মৃত বিজেপি নেতার পরিবারকে সঙ্গে করে রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করতে যান বিজেপি নেত্রী লকেট চট্টোপাধ্যায়।

এই সাক্ষাৎকার এর পরেই মুখ্যমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে এহেন সাবধান বাণী দিলেন রাজ্যপাল। এদিন তিনি বলেছেন, সংবিধান রক্ষা করতেই রাজ্যে এসেছেন তিনি। কিন্তু মমতা সরকারের অধীনস্থ সরকারি আমলা এবং পুলিশ রীতিমতো আগুন নিয়ে খেলছে। তারা রাজনৈতিক কর্মী নন, তাই রাজনীতি করা তাদের পোষায় না। তিনি আরো বলেছেন, রাজ্য সরকার কুম্ভকর্ণের মতো ঘুমোচ্ছে। তারা ভুলে গেছে নিয়তি বলেও কিছু একটা আছে।

উল্লেখ্য, এর আগে বহুবার রাজ্যপালের বিরোধিতার কড়া প্রতিক্রিয়া দিয়েছে রাজ্য সরকার। তৃণমূল নেতাকর্মীরা তাকে নিয়ে বরাবর ট্রোল করে এসেছেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে মুখ্যমন্ত্রী প্রতি রাজ্যপালের বক্তব্য, রাজ্যপালকে কখনোই ট্রোল করে থামানো যায় না। রাজ্যে সঠিক আইন-শৃঙ্খলা প্রতিষ্ঠার দিকে দৃষ্টি না দিলে অচিরেই তার ফল ভোগ করতে হবে। রাজ্যপাল আরও জানিয়েছেন, মৃত বিজেপি নেতার দাদা এই ঘটনার সত্যতা যাচাই করতে সিবিআই তদন্তের আবেদন করেছেন।