এবার থেকে ওবিসি সম্প্রদায় মানুষদের চিহ্নিত করতে পারবে রাজ্য সরকার! বিল পাশ লোকসভায়

33
এবার থেকে ওবিসি সম্প্রদায় মানুষদের চিহ্নিত করতে পারবে রাজ্য সরকার! বিল পাশ লোকসভায়

পেগাসাস বিতর্কে সংসদে নাভিশ্বাস উঠেছে কেন্দ্রের। তবে সংসদে প্রবল বিক্ষোভের মুখে পড়লেও এক অত্যন্ত চমকপ্রদ সংবিধান সংশোধনী বিল পাস করিয়ে নিলো কেন্দ্রীয় সরকার। কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তকে সমর্থন জানালেন বিরোধী শিবিরের সদস্যরাও। কেন্দ্রের তরফ থেকে চালু করা এই ওবিসি বিল আসলে পিছিয়ে পড়া সম্প্রদায় মানুষের উন্নয়নের স্বার্থে। তাই বিরোধীদের তরফ থেকে আর কোনো প্রতিবাদ আসেনি।

কেন্দ্রের আনা এই ওবিসি বিল আসলে সংবিধানের ১২৭ তম সংশোধনী। এই বিল আইনে পরিণত হলে রাজ্য সরকার গুলি এবার থেকে ওবিসি সম্প্রদায়ের মানুষদের চিহ্নিত করতে পারবে। অনগ্রসর জাতিতে কাদের অন্তর্ভুক্ত করা যেতে পারে, সে সম্পর্কে ব্যবস্থা নিতে পারবে রাজ্য সরকার। ২০১৮ সালের সুপ্রিম কোর্টের একটি রায়ের বিপক্ষে এই বিল পাস করানো হয়েছে।

২০১৮ সালে মারাঠা সংরক্ষণ মামলায় শীর্ষ আদালত জানিয়েছিল যে ওবিসি সম্প্রদায়ের মধ্যে কাদের অন্তর্ভুক্ত করা যাবে সে সম্পর্কে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে পারে কেন্দ্রীয় সরকার। এর ফলে দেশের বিভিন্ন রাজ্যের পিছিয়ে পড়া সম্প্রদায় ভুক্ত মানুষের সংরক্ষণের আওতা থেকে বাদ থেকে যাচ্ছিলেন। এদিন কেন্দ্রের প্রস্তাবিত এই বিলে একটি সংশোধন আনার পক্ষে সওয়াল করে শিবসেনা। যদিও সেই প্রস্তাব গৃহীত হয়নি।

এই বিলটি লোকসভায় পাস হয়ে যাওয়ার পরপরই রাজ্যসভায় পাঠানো হবে বলে জানানো হয়েছে। সেখানে বিলটি পাস হয়ে গেলে সরাসরি রাষ্ট্রপতির কাছে বিল পাঠানো হবে। রাষ্ট্রপতির স্বাক্ষর মিললেই বিলটি আইনে পরিণত হবে। উপকৃত হবেন হাজার হাজার মানুষ। কেন্দ্রের এই বিল পেশ হওয়াতে এদিন সংসদে পেগাসাস নিয়ে তেমন বিরোধিতা করার সুযোগ পায়নি বিরোধীরা।