আগামী সোমবার থেকেই হিমশীতল ঠান্ডা বাতাসের ছোঁয়ায় কাপবে বঙ্গবাসীঃ আবহাওয়া দপ্তর

3
আগামী সোমবার থেকেই হিমশীতল ঠান্ডা বাতাসের ছোঁয়ায় কাপবে বঙ্গবাসীঃ আবহাওয়া দপ্তর

শীতের আগমনের কাউন্টডাউন শুরু হয়ে গিয়েছে। আগামী সপ্তাহ থেকেই রাজ্যে শীতের প্রভাব পড়তে শুরু করবে। আলিপুরের পূর্বাভাস সত্যি প্রমাণিত করে গতকাল শনিবার থেকেই শহরের তাপমাত্রার পারদ নিচের দিকে নামতে শুরু করেছে। বর্তমানে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তরের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যেই তাপমাত্রার পারদ কুড়ি ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে নেমে যাবে। যার ফলে আগামী সোমবার থেকে রাজ্যবাসী বেশ ভালোমতোই শীতের উপস্থিতি টের পাবেন।

আবহাওয়া দপ্তর সূত্রে খবর, ইতিমধ্যেই উত্তর-পূর্ব ভারতে দ্বিতীয় দফার পশ্চিমী ঝঞ্জা প্রবেশ করেছে। তবে ভূমধ্যসাগরীয় অঞ্চলের উপর দিয়ে প্রবাহিত হওয়ার সময় জলীয় বাষ্প সংগ্রহ করে সেই পশ্চিমী ঝঞ্ঝা পশ্চিম থেকে পূর্ব দিকে সরে এসেছে। এই ঝঞ্ঝার প্রভাবেই পশ্চিম হিমালয়ের তুষারপাতের সম্ভাবনার কথা জানিয়েছে হাওয়া অফিস। ঝঞ্ঝার প্রভাব কাটলেই হিমালয় থেকে আগত ঠান্ডা বাতাসের প্রভাব বেশ ভালই টের পাওয়া যাবে।

হাওয়া অফিস সূত্রে খবর, আগামী সোমবার থেকেই হিমালয় থেকে আগত হিমশীতল ঠান্ডা বাতাসের ছোঁয়ায় কাপবে বঙ্গবাসী। কলকাতার তাপমাত্রা এক ধাক্কায় ১৮ডিগ্রী সেলসিয়াস পর্যন্ত নেমে যাওয়ার সম্ভাবনা আছে। এদিকে উত্তরবঙ্গেও বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। তবে জাঁকিয়ে শীত পড়তে এখনো বেশ খানিকটা দেরি আছে। মৌসম বিভাগ সূত্রে খবর, শীতের প্রকৃত আমেজ উপভোগ করার জন্য আগামী ডিসেম্বর মাস পর্যন্ত অপেক্ষা করতেই হবে।

উল্লেখ্য, গত শনিবার সকাল থেকেই কলকাতা শহরের আকাশের মুখ ভার। কলকাতাসহ দক্ষিণবঙ্গের অন্যান্য জেলাগুলিতেও একই চিত্র দেখা গিয়েছে। ফলে তাপমাত্রা ইতিমধ্যেই স্বাভাবিকের থেকে বেশ নিচে নেমে গিয়েছে। কলকাতা এবং তার পার্শ্ববর্তী অঞ্চল গুলিতে শনিবার ভোরের দিকে এক পশলা বৃষ্টি পাতও হয়ে গিয়েছে। ফলে তাপমাত্রার পারদ শনিবার থেকেই ধীরে ধীরে নিচের দিকে এগোচ্ছে।