বন্ধুরাই আমাকে পিছন থেকে ছুরি মেরেছেন! বিস্ফোরক অভিনেতা শ্রেয়স তলপড়ে

17
বন্ধুরাই আমাকে পিছন থেকে ছুরি মেরেছেন! বিস্ফোরক অভিনেতা শ্রেয়স তলপড়ে

বক্স অফিসে অভিনেতা শ্রেয়স তলপড়ে-র শেষ ছবি ছিল ‘সেটার্স’। ইকবাল ছাড়াও, ‘আপনা সপনা মানি মানি’, ‘ওম শান্তি ওম’, ‘ওয়েলকাম টু সজ্জনপুর’, ‘গোলমাল রিটার্নস’, ‘গোলমাল ৩’-এর মতো ছবিতে দেখা মিলছে তাঁর। পোস্টার বয়েজ নামের একটি ছবি পরিচালনাও করেছেন শ্রেয়স তলপড়ে।

সম্প্রতি অভিনেতা শ্রেয়স তলপড়ে বলিউড ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ তুললেন। অভিনেতার দাবি, ইন্ডাস্ট্রিতে তাঁর বন্ধুরাই তাঁকে পিছন থেকে ছুরি মেরেছেন।

একটি সংবাদমাধ্যমকে সাক্ষাৎকারে শ্রেয়স বলেছেন, ‘এমন অনেক সময় ছিল যখন কয়েকজন অভিনেতা আমার সঙ্গে কাজ করতে অস্বীকার করেছিলেন। কারণ হিসেবে বলা হয়েছিল তাঁরা নিরাপদ অনুভব করছিলেন না।’

শ্রেয়স ‘ইকবাল’ ছবিতে অভিনয় করে ক্রিটিক্স ও বাণিজ্যিক দু’ধরনের ছবির দর্শকেরই ভালোবাসা পেয়েছিলেন।

শ্রেয়স বলেন, সিনেমার জগতে নিজেকে বিক্রি করতে তিনি অপারগ। যদিও তাঁর কাজই আসল কথা বলবে বলে দাবি করেছেন অভিনেতা। সাক্ষাৎকারে সরাসরি শ্রেয়স অভিযোগ করে বলেছেন, ‘আমি দেখেছিলাম কয়েকজন অভিনেতা আমি ছবিতে থাকলে অভিনয় করতে রাজি হননি। কয়েকটা ছবি আমি আমার বন্ধুদের জন্যই করেছিলাম, পরে দেখেছি তাঁরাই আমাকে পিছন থেকে ছুরি মেরেছেন। অনেকে আবার তার পরেও ছবি করেছেন তবে আমাকে ডাকার আর প্রয়োজন মনে করেননি। এতে একটাই প্রশ্ন ওঠে, তাঁরা আদৌ কি বন্ধু? আসলে, এই ইন্ডাস্ট্রিতে ১০ শতাংশ লোকই আপনার ভালো হলে খুশি হন। বাকি সব ইগোয় ভরা।’