প্রতারণার জন্য নতুন ফাঁদ পেতে চলেছে প্রতারকেরা! সতর্ক করলো অর্থ মন্ত্রক

10
প্রতারণার জন্য নতুন ফাঁদ পেতে চলেছে প্রতারকেরা! সতর্ক করলো অর্থ মন্ত্রক

সাধারণ মানুষের কষ্টের সঞ্চিত অর্থ প্রতারণার জন্য নিত্য নতুন ফাঁদ পেতে চলেছে প্রতারকেরা। এবার অর্থ মন্ত্রকের নামে সাধারণ মানুষকে প্রতারণার জন্য নতুন ফাঁদের সন্ধান মিললো। এই দফায় অর্থ মন্ত্রকের নামে ১.৩০ লক্ষ টাকা করে এমারজেন্সি ক্যাশ হিসেবে বিতরণ করার ভুয়ো মেসেজ পাঠানো হচ্ছে সাধারন মানুষকে। সোশ্যাল মিডিয়ায় এই সংক্রান্ত একটি মেসেজ দ্রুত ভাইরাল হচ্ছে। PIB Fact Check ভিডিও-র সত্যতা যাচাই করার পর এই বিষয়ে সাধারণ মানুষকে সতর্ক করেছে।

PIB Fact Check এর তরফ থেকে এই ভিডিওটিকে সম্পূর্ণ ফেক বলে ঘোষণা করা হয়েছে। পাশাপাশি সাধারণ মানুষকে সাফ জানিয়ে দেওয়া হয়েছে যে অর্থ মন্ত্রকের তরফ থেকে এই সংক্রান্ত কোনো যোজনা এখনও চালু করা হয়নি। সম্প্রতি এই বিষয়ে একটি টুইট বার্তায় সতর্ক করে জানানো হয়েছে, হোয়াটসঅ্যাপ মেসেজ মারফত দেশের অর্থ মন্ত্রকের এমারজেন্সি ক্যাশ বিতরণের ভুয়ো খবর সাধারণ মানুষের মধ্যে ছড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে।

ওই হোয়াটসঅ্যাপ মেসেজে উল্লেখ করা হয়েছে যে এমারজেন্সি ক্যাশ হিসেবে অর্থ মন্ত্রকের তরফ থেকে প্রত্যেককে ৬ মাসের জন্য প্রতি মাসে ১.৩০ লক্ষ টাকা করে দেওয়া হবে। #PIBFactCheck এর তরফ থেকে এই প্রচারকে সম্পূর্ণ ভুয়ো বলে দাবি করা হয়েছে। একইসঙ্গে ভবিষ্যতের জন্য দেশের নাগরিকদের এই ধরনের কোনওরকম যোজনার উপর বিশ্বাস করার আগে সেটি ভাল করে যাচাই করে নেওয়ারও পরামর্শ দিয়েছে সংশ্লিষ্ট সংস্থা।

এই ধরনের সমস্ত যোজনার তথ্য প্রথমে মন্ত্রকের তরফে তাদের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে জারি করা হয়ে থাকে। তাই এই যোজনাতে আবেদন করার আগে নির্ধারিত মন্ত্রকের ওয়েবসাইট, পিআইবি বা অন্যান্য ভরসা যোগ্য মাধ্যমে যাচাই করা আবশ্যক। নতুবা পরবর্তী দিনে বড় অংকের লোকসান হতে পারে। প্রসঙ্গত করোনার মধ্যে প্রায়শই এই ধরনের ফেক নিউজ ছড়িয়ে পড়ছে। সোশ্যাল মিডিয়াতে ফেক নিউজ যাতে ছড়িয়ে না পড়ে তার জন্য বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে।