প্রতারণার জন্য নিত্য নতুন ফন্দি খুঁজে বার করছে প্রতারকেরা! সতর্ক করলো ব্যাংক কর্তৃপক্ষ

10
প্রতারণার জন্য নিত্য নতুন ফন্দি খুঁজে বার করছে প্রতারকেরা! সতর্ক করলো ব্যাংক কর্তৃপক্ষ

গ্রাহককে অনলাইনে প্রতারণার জন্য নিত্য নতুন ফন্দি খুঁজে বার করছে প্রতারকেরা। এখন আবার প্রতারকেরা পেমেন্টের জন্য ভুয়া ব্যাংক ওয়েবসাইটের লিংক পাঠাচ্ছে। এদিকে গ্রাহকেরা সেই লিংকে পেমেন্টের আগে তা খতিয়ে দেখছেন না। যার ফলে নিজের একাউন্টে তথ্য দিয়ে বসে মুহূর্তের মধ্যে সর্বস্বান্ত হয়েছেন অনেকেই। এক্ষেত্রে নেট ব্যাংকিংয়ের আগে বেশ কিছু বিষয় নিয়ে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিচ্ছে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ।

গ্রাহক এবং বিভিন্ন সংস্থার ইমেইল আইডি হাতিয়ে নিয়েছে প্রতারকরা। সেই ইমেইলে ব্যাংকে সরিয়ে নিজের ইমেইল বসিয়ে দেওয়া হয়েছে। গ্রাহকের কাছে টাকা পাঠানোর অনুরোধ করা হচ্ছে ইমেইল মারফত। এর জন্য কোন রকম ট্রানস্যাকশন করার আগে নিশ্চিত হয়ে নিন আপনি সেই কোম্পানিকেই টাকা পাঠিয়েছেন কিনা।

টাকা পাঠানোর আগে ব্যাংক একাউন্ট চেক করে নিন। কোনরকম সন্দেহের উদ্রেক হলে কখনোই টাকা পাঠাবেন না। ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের তথ্য যাচাই করার জন্য সংস্থার অফিশিয়াল ওয়েবসাইট থেকে কাস্টমার কেয়ারের নম্বর নিয়ে ফোন করতে পারেন। কোন রকম সন্দেহ হলে নিকটবর্তী ব্রাঞ্চের সঙ্গে গিয়ে যোগাযোগ করুন। ইমেইল বা সোশ্যাল মিডিয়ার কোনও লেখাতে বিশ্বাস করতে যাবেন না।

সব ট্রানজাকশনের শেষে স্ক্রিনশট নিয়ে রাখুন। টুইটারে যদি কেউ যোগাযোগ করে তাহলে সেই একাউন্ট ভেরিফাইড কিনা দেখে নিন। ভুল একাউন্টে টাকা পাঠালে সঙ্গে সঙ্গে ব্যাংকের সঙ্গে গিয়ে যোগাযোগ করুন। অনেকেই কিন্তু সময় থাকতে থাকতে ব্যাংকের সঙ্গে যোগাযোগ করে নিজেদের টাকা ফেরত পেয়েছেন। কোন সংস্থার ওয়েবসাইট যদি এইচটিটিপিএস দিয়ে শুরু না হয় তাহলে সেই ওয়েবসাইট ওপেন করবেন না।