কার্টুন চিত্র ব্যবহার করায় শিক্ষককে খুন, ঘটনার জেরে স্তম্ভিত ফ্রান্স

6
কার্টুন চিত্র ব্যবহার করায় শিক্ষককে খুন, ঘটনার জেরে স্তম্ভিত ফ্রান্স

মৌলবাদী মনোভাবের চরম নিদর্শন মিললো ফ্রান্সে। শুধুমাত্র হযরত মোহাম্মদের ছবি দেখানোর অভিযোগে ফ্রান্সের এক শিক্ষকের মাথা কেটে খুন করলো এক চেচেন জঙ্গি। ঘটনাটি ঘটেছে ফ্রান্সের রাজধানী শহর প্যারিসের প্রকাশ্য রাস্তায়। ঘটনার জেরে স্তম্ভিত ফ্রান্স। তবে এই বর্বরোচিত ঘটনার পর ফ্রান্সে গজিয়ে ওঠা মুসলিম সন্ত্রাসবাদিদের ডেরাই ঢুকে সন্ত্রাসবাদীদের গ্রেপ্তার করতে শুরু করেছে ফ্রান্সের পুলিশ।

নিহত ওই শিক্ষকের নাম স্যামুয়েল পি। তিনি ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসের একটি স্কুলে শিক্ষকতা করতেন। ছাত্রদের মধ্যে ধর্মনিরপেক্ষতার বীজ বুনতে গিয়ে তিনি মুসলিম সম্প্রদায়ের উপাস্য হযরত মোহাম্মদের একটি কার্টুন চিত্র ব্যবহার করেছিলেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে ধর্মান্ধ, মৌলবাদী মুসলিম সংগঠনের কোপের মুখে পড়েন তিনি। ফলাফল স্বরূপ গত শুক্রবার ভরদুপুরে প্রকাশ্য রাস্তায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে তার মাথা কেটে খুন করে এক চেচেন জঙ্গি।

ঘটনার পর পুলিশ তাকে ধরতে গেলে ধারালো অস্ত্র নিয়ে তাদের মেরে ফেলার হুমকি দেখাতে থাকে সে। উপায়ান্তর না দেখে শেষমেষ বাধ্য হয়েই তাকে গুলি করে খতম করে ফ্রান্সের পুলিশ। ফ্রান্সে মৌলবাদী মনোভাব কিভাবে ডানা মেলছে, তা এই ঘটনা থেকেই স্পষ্ট। উল্লেখ্য, দিন কতক আগেই ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ দাবি করেছিলেন, ফ্রান্সের ধর্ম নিরপেক্ষতায় কখনো আঘাত লাগতে দেবেন না তিনি।

এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে ইতিমধ্যেই প্যারিসসহ ফ্রান্সের বেশ কয়েকটি জায়গায় সন্দেহজনক মুসলিম সন্ত্রাসবাদীদের ডেরায় অভিযান চালায় পুলিশ। ফ্রান্সের অভ্যন্তরীণ বিষয়ক মন্ত্রী জেরাল্ড ডারমানিন জানিয়েছেন, এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে সোশ্যাল মিডিয়ায় মৌলবাদী বার্তা ছড়ানোর বিরুদ্ধে পুলিশের তরফ থেকে অন্তত পক্ষে আশিটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। ফ্রান্সের প্রধানমন্ত্রী জিন কসটেক্স জানিয়েছেন, মৌলবাদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে, যাতে দেশের মানুষ শান্তিতে বসবাস করতে পারেন।