প্রতি হিংসায় সাপকেই কামড়ে বসলো বছর পয়তাল্লিশ এক ব্যক্তি! চাঞ্চল্য এলাকায়

28
প্রতি হিংসায় সাপকেই কামড়ে বসলো বছর পয়তাল্লিশ এক ব্যক্তি! চাঞ্চল্য এলাকায়

পৃথিবীতে রোজই কিছু না কিছু ঘটে চলেছে নানা অদ্ভুত ঘটনা। সাপ মানেই তা মানুষের মনে রীতিমতো ভয়ের উদ্রেক ঘটায়। মানুষ ভয়ে আতঙ্কে আঁতকে ওঠেন। সেই সাপ’কেই কখনো মানুষে কামড়ায় নাকি!! তাও আবার প্রতি শোধের বশে কোনরকম উপায় না পেয়ে। এমনই অদ্ভুত ঘটনা ঘটেছে ওড়িশার জয়পুর জেলার এক প্রত্যন্ত গ্রামে।

জানা গিয়েছে, ওই গ্রামটি আদিবাসী অধ্যুষিত। ওই গ্রামেরই পয়তাল্লিশ বছরের এক ব্যক্তি এই কাণ্ডটি ঘটিয়েছেন। যা এখন সকলের মুখে মুখে ছড়িয়ে পড়েছে। দানাগাড়ি ব্লকের সালিজাঙ্গা পঞ্চায়েতের গাম্ভারীপাতিয়া গ্রামে থাকেন এই ব্যক্তি। নাম কিশোর বদ্রা। এমন অদ্ভুত ঘটনার জেরে ওই ব্যক্তি রীতিমতো জনপ্রিয় হয়ে গিয়েছেন।

সূত্রের খবর, কিশোরবাবু গত বুধবার রাতে তাঁর ক্ষেতের জমি থেকে মাঠের পথ ধরে বাড়ি ফিরছিলেন। ধানের জমিতে হঠাৎই তাঁর পায়ে কিছু একটা কামড়ায়। সঙ্গে সঙ্গে হাতে থাকা টর্চটি জ্বালিয়ে দেখেন, একটি বিষধর সাপ। রাগে প্রতিহিংসায় দিগবিদিগ জ্ঞান শূন্য হয়ে তিনি সাপটিকে কামড়ে, ক্ষতবিক্ষত করে দেন। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় সাপটির।

এরপর সাপের মাথা আর দেহটি হাতে ধরে বাড়ি ফিরে আসেন কিশোর। নিমেষে গোটা গ্রামে কথাটা ছড়িয়ে যায়। গ্রামের লোকরা এসে ভিড় জমায় কিশোরের বাড়িতে। অনেকেই তাঁকে হাসপাতালে যাওয়ার জন্য পরামর্শ দেন। কিন্তু কিশোর তা না মেনে গ্রামের এক ওঝার পরামর্শ নেন। তাঁর বক্তব্য, বিষাক্ত সাপকে কামড়ালেও তাঁর শরীরে কোনো সমস্যা নেই।