ব্রিগেড সমাবেশে যোগদান করার ইচ্ছে প্রকাশ করলেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য

13
ব্রিগেড সমাবেশে যোগদান করার ইচ্ছে প্রকাশ করলেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য

শারীরিক অসুস্থতা থাকার কারণে তিনি এখন শয্যাশায়ী, হয়তো দলের সাথে তেমন ভাবে যোগাযোগ রাখা সম্ভব হয়না তার। কিন্তু তাই বলে এই শরীর নিয়েও তিনি বামফ্রন্টের ব্রিগেড সমাবেশে যোগদান করতে ইচ্ছে প্রকাশ করেছেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। সম্প্রতি আলিমুদ্দিন স্ট্রিটের বাড়ির তরফ থেকে খবর প্রকাশ্যে এসেছে যে, এই বামফ্রন্টের ব্রিগেড সমাবেশে যোগদান করতে চান তিনি।

স্বাভাবিকভাবেই রাজ্য বামফ্রন্ট নেতৃত্ব চায় কিছুক্ষণের জন্য হলেও সমাবেশে যোগদান করুক বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। কিন্তু তাহার বর্তমান শারীরিক পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখেই অনুরোধ করা হয়নি। এদিকে অবশ্য বামফ্রন্টের যুব নেতৃত্ব জানিয়েছেন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের জন্য ব্যবস্থা করা হবে ভার্চুয়াল উপস্থিতির। আবার শোনা যাচ্ছে তিনি নাকি লিখিত বার্তা পাঠাবেন ব্রিগেডে। এই সবের মধ্যেই ব্রিগেড সমাবেশে আসার জন্য নিজের থেকেই ইচ্ছে প্রকাশ করেছেন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য যা রাজ্য বামফ্রন্ট নেতৃত্বকে উজ্জীবিত করে তুলেছে।

কিন্তু ইচ্ছা প্রকাশ করলেই তো আর আসা যাবেনা এই শরীর নিয়ে। এই কারণে মুজাফফর আহমেদ ভবনের বিভিন্ন উচ্চ নেতৃত্ব তরফ থেকে এই বিষয় নিয়ে অন্য কথা বলা হয়েছে। তারা জানিয়েছে চিকিৎসকের অনুমতি না নিয়ে আসা উচিত হবে না। কারণ ব্রিগেডের মাঠের ধুলোয় এলার্জি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তাই বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের চিকিৎসকের অনুমতি ছাড়া আসা উচিত হবে না।

এই নিয়ে মোহাম্মদ সেলিম জানিয়েছেন, আমরা সবাই জানি বামফ্রন্ট নেতৃত্বে বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের নাম কতটা গুরুত্বপূর্ণ। বামফ্রন্টের কর্মী-সমর্থকরা সবাই আশা করে বসে থাকে তার কথা শোনার জন্য। তার উপস্থিতি আমাদের অনেকটাই আনন্দ দেবে কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতি ও তার শারীরিক অবস্থার কথা মাথায় রেখে চিকিৎসকের সিদ্ধান্ত ছাড়া আসাটা উচিৎ হবেনা তার।