ফের শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটলো রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের

11
ফের শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটলো রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের

দীর্ঘ বেশ কয়েক মাস ধরেই অসুখের বিরুদ্ধে লড়াই চলছিল তার। তার মাঝেই আবার মারণ ভাইরাস করোনার কবলে পড়েন রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। আক্রান্ত হলেও এতদিন অবশ্য বাড়িতে থেকেই তার চিকিৎসা চলছিল। এতদিন বেশ ভালই ছিলেন তিনি। তবে মঙ্গলবার সকালেই এল খারাপ খবর। করোনা আক্রান্ত রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর শারীরিক পরিস্থিতির ক্রমাগত অবনতির দিকে যাচ্ছে।

মঙ্গলবার সকালে আচমকাই তার রক্তে অক্সিজেনের মাত্রা অনেকখানি কমে গিয়েছে। যার ফলে শ্বাসকষ্ট জনিত সমস্যায় ভুগতে শুরু করেছেন রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী। এমতাবস্থায় তার পরিবারের সদস্যরা তাকে আর বাড়িতে রেখে চিকিৎসা করাতে সাহস পাচ্ছেন না। যার ফলে দ্রুত তাকে চিকিৎসা কেন্দ্রে স্থানান্তরিত করার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। আলিপুরের কোন একটি বেসরকারি হাসপাতালে তাকে ভর্তি করানো হতে পারে বলে খবর পাওয়া গিয়েছে।

খবর পেয়ে তার বাড়িতে ছুটে গিয়েছেন দলীয় কর্মীরা। তারাই পরিবারবর্গের সঙ্গে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করানোর ব্যবস্থা করছেন। প্রসঙ্গত কিছুদিন আগেই বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গিয়েছিল। খবর পেয়ে রাজনৈতিক মহলের নেতা-নেত্রীরা একযোগে দ্রুত তার সুস্থতা কামনা করেছেন। তবে আজ বর্ষীয়ান এই রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বের শারীরিক অবস্থার কথা জানতে পেরে উদ্বিগ্ন রাজনৈতিক মহল।

শরীরে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি সম্পর্কে নিশ্চিত খবর পাওয়ার পরেও হাসপাতালে ভর্তি হতে চাননি বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। তার ইচ্ছেতে বাড়িতে থেকেই তার চিকিৎসা শুরু হয়েছে। এতদিন সেভাবেই ছিলেন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। চিকিৎসায় সাড়াও দিয়েছিলেন তিনি। তবে মঙ্গলবার আচমকা তিনি আরও অসুস্থ হয়ে পড়েন। বর্তমানে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করানোর তোড়জোড় চলছে।