কার্তিক মাসে পালন করুন এই নিয়ম গুলি, ফিরে পাবেন হারানো সুখ শান্তি

11
কার্তিক মাসে পালন করুন এই নিয়ম গুলি, ফিরে পাবেন হারানো সুখ শান্তি

১ লা অক্টোবর পূর্নিমার দিন থেকেই শুরু হয়ে গেছে কার্তিক মাস। পুরাণে কথিত আছে এই মাস শিব ও বিষ্ণুর মাস। এছাড়াও রয়েছে দেবী দুর্গার আগমন। এজন্য ভারতবর্ষের অনেক রাজ্যে মহাদেব শিবের পুজো করা হয়। যেমন অন্ধ্রপ্রদেশ ও কর্নাটকে মানুষেরা পুরো কার্তিক মাস ধরে প্রতি সোমবার মহাদেবের ব্রত পালন করেন। এই মাসে কয়েকটি নিয়ম পালনের মাধ্যমে আপনি মহাদেব ও দূর্গার আশির্বাদ ও কৃপা পেতে পারেন।

নিয়মগুলি খুবই সহজ সেরম কোনো কঠিন নিয়ম নেই এর মধ্যে। তাহলে জেনে নেয়া যাক নিয়ম গুলি কি কি, কার্তিক মাসের প্রথম দিন থেকে বাড়ির বাইরে পূর্বপুরুষদের উদ্দেশ্যে প্রদীপ জ্বালান। এই নিয়মের মাধ্যমে আপনি আপনার পূর্ব পুরুষের কাছ থেকে আশীর্বাদ প্রাপ্ত হতে পারবেন এবং আপনার জীবনে কোনো সমস্যা আর থাকবেনা। এছাড়াও এই মাসে ঘরবাড়ি পরিষ্কার রাখা উচিত অনেকে আবার এই মাসে ঘরদোর পরিষ্কার করে থাকে। সবথেকে ভালো হয় সকালে উঠে বাড়ির দরজা জল দিয়ে ভালো করে ধুয়ে নিন এবং কেউ বাড়ি থেকে বের হলে তার পরেও ভাল করে জল দিয়ে ধুয়ে দেওয়াই শ্রেয়।

অন্যদিকে কার্তিক মাসের প্রথম দিন থেকে নাহলেও দেবীপক্ষের দিন থেকে রোজ সকালে উঠে প্রথমে ভগবানের পুজো করুন। তারপর বাড়ির সমস্ত কাজ করুন তাহলে দেখতে পাবেন আপনার সংসার সুখ ও সমৃদ্ধিতে ভরে উঠেছে। এই মাসে যদি গরিব-দুঃখীদের আপনার সাধ্যমতো কোন কিছু দান করা যায়। তাহলে তো খুবই ভালো বলে মনে করা হয়। এই কাজ করলে ভগবান আপনার উপর সুষ্ঠু হবে এবং তার আশীর্বাদ ও কৃপা আপনার উপর বজায় রাখবে।

তবে সব থেকে ভালো পন্থা ও গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল দেবীপক্ষে কোন কিছু গহনা কেনা। সোনার হতে হবে এমন কোন কথা নেই রুপোর হতে পারে। দেবীপক্ষে কোনো গহনা কিনলে সংসারে কোনদিন অভাব থাকবেনা এমনটাই মনে করা হয়। উপরিউক্ত এই নিয়মগুলো পুরো কার্তিক মাস জুড়ে মেনে চলুন দেখবেন আপনার জীবন সুখে শান্তিতে ভরে উঠেছে।