জেনে নিন যে চারটি কারনে মা লক্ষ্মী গৃহ ত্যাগ করেন

7
জেনে নিন যে চারটি কারনে মা লক্ষ্মী গৃহ ত্যাগ করেন

প্রত্যেক মানুষই তার জীবনে সুখ-শান্তি চায়। জীবনে যেন কোনদিন সম্পদের অভাব না হয়, এমন কামনা করেন প্রত্যেক মানুষ। মা লক্ষ্মী যাতে প্রত্যেকের ঘরে বাস করে, তার জন্য কোন চেষ্টার ত্রুটি রাখেন না কেউ। তাই যদি আপনি আপনার গ্রিয়ে লক্ষীদেবী অচলা অবস্থায় রাখতে চান তাহলে এক্ষুনি আপনাকে চারটি কাজ বন্ধ করতে হবে। নিম্নোক্ত এই চারটি কাজ করলে মা লক্ষ্মীর বাহন এবং সেই ঘর ত্যাগ করেন।

 ১. ঝগড়া অশান্তি: যে সমস্ত গৃহে নিত্য ঝগড়া অশান্তি লেগে থাকে, সেই গৃহ মা লক্ষী ত্যাগ করে চলে যান। তাই যদি আপনাদের ঘরে নিত্য ঝগড়া অশান্তি লেগে থাকে, তাহলে অবিলম্বে তা কমানোর চেষ্টা করুন। ঘরে শান্তি প্রতিষ্ঠার চেষ্টা করুন।মা লক্ষ্মী যদি ঝগড়া অশান্তি দেখে আপনার গৃহত্যাগ ও করে, পরে আপনার গৃহে শান্তি দেখে তিনি আবার ফিরে আসবেন। না কখনোই সন্তানের প্রতি অধিক সময় রেগে থাকতে পারেন না।

 ২. বৃদ্ধ মানুষদের অপমান: যদি আপনার গৃহে কোন বৃদ্ধ মানুষকে অপমান করা হয়, তাহলে সেই গৃহে মা লক্ষ্মী থাকেন না। যদি আপনার গৃহে বয়স্ক মানুষ কষ্ট পান এবং নিত্যদিন চোখের জল ফেলে, তাহলে আপনার পরিবারের ওপর রুষ্ট হবেন মা লক্ষ্মী। মায়ের কৃপা পেতে গেলে আজ থেকে গৃহের বয়স্ক মানুষদের সেবা শুশ্রূষা শুরু করুন। মা লক্ষ্মী রুষ্ট আবার অর্থ সংসার থেকে সুখ এবং শান্তি চলে যাওয়া। তাই চেষ্টা করুন যাতে মা লক্ষ্মী কখনো রুষ্ট না হন।

৩. মিথ্যে কথা: প্রয়োজনে সকলেই মিথ্যে কথা বলে। কিন্তু প্রতিনিয়ত মিথ্যে কথা মা লক্ষ্মী সহ্য করতে পারেন না। তাই মিথ্যা কথা বলার বদভ্যাস যদি থেকে থাকে তা আজই ত্যাগ করুন। আপনার মিথ্যে কথা বলার মাধ্যমে যদি কেউ কষ্ট পায় তাহলে মা লক্ষ্মী আপনার ওপর রেগে যাবেন এবং আপনার গৃহ ত্যাগ করে চলে যাবেন। তাই মা লক্ষ্মী কে সন্তুষ্ট করতে চাইলে আজই বদঅভ্যাস ত্যাগ করতে হবে।

 ৪. অন্ন এর অপমান: অন্ন মানেই হল মা লক্ষ্মী। যে গৃহে প্রতিনিয়ত অন্ন অর্থাৎ ভাতের অপমান হয় সেই গৃহ থেকে বিদায় নেন। তাই যদি আপনার গৃহে যদি অন্ন কে অপমান করা হয় তাহলে আজ থেকেই তা বন্ধ করুন। মা লক্ষ্মীর থেকে ক্ষমা চেয়ে নিয়ে করা শুরু করুন। আপনি যদি মা লক্ষ্মীর কাছে আপনার অপরাধের ক্ষমা চেয়ে নেন তাহলে নিশ্চয়ই তিনি ক্ষমা করে দেবেন।